উৎসবের আনন্দ ভাগ করে নিন: প্রধানমন্ত্রী

0
31
বাংলাদেশে এখন গণতন্ত্র যেমন সুসংহত তেমনি অর্থনীতিও শক্তিশালী। এমনটা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন- মানুষের মৌলিক অধিকার পূরণ করে উন্নয়নের পথে হাঁটছে দেশ। দুপুরে গণভবনে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় এ কথা বলেন শেখ হাসিনা। খুশির এই দিনে বিচারপতি, কূটনীতিক, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বসহ সর্বস্তরের মানুষ শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রীকে। দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন- উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।

 

এক মাসের সিয়াম-সাধনার পর এসেছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। খুশি আর সৌহার্দ্যের এই উৎসবের দিনে সরকার প্রধানের বাসভবন গণভবনের দুয়ার ছিল সমাজের সর্বস্তরের মানুষের জন্য উন্মুক্ত। বেলা ১০টায় শুভেচ্ছা বিনিময় করতে গণভবনের অস্থায়ী মঞ্চে ওঠেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুরুতেই দলের পক্ষ থেকে জ্যেষ্ঠ নেতৃবৃন্দ ঈদ শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রীকে।

 

এরপর একে একে ১৪ দলসহ দেশের বরেণ্য ব্যক্তিদের পক্ষ থেকেও প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয় ঈদ শুভেচ্ছা। উৎসবের আনন্দ ভাগ করে নিতে নেতাকর্মীকে পাশে নিয়ে সর্বস্তরের নাগরিকদের শুভেচ্ছা জানান সরকার প্রধান শেখ হাসিনা। এ সময় বিভিন্ন স্তরের নাগরিক সারিবদ্ধ ভাবে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। শুভেচ্ছা বিনিময় পর্বের এক ফাঁকে গণমাধ্যম-কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন শেখ হাসিনা। এ সময় দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন- খুশির ঈদে অনাবিল আনন্দে ভাসছে দেশ ও দেশের মানুষ।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সকলকে ঈদের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। ঈদ সকলের জীবনে অনাবিল আনন্দ নিয়ে এসেছে। আমি চাই বাংলাদেশের মানুষ আনন্দঘন পরিবেশে সারাটা জীবন বসবাস করবে।

 

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ আজ অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী। বাংলাদেশের গণতন্ত্র সুরক্ষিত। বাংলাদেশের জনগণের মৌলিক অধিকার আমরা নিশ্চিত করতে পেরেছি। এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে হবে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে ইনশাল্লাহ এগিয়ে যাবে।

LEAVE A REPLY