এ কেমনতর বিয়ের প্রস্তাব : সম্মতি দিলেন প্রেমিকাও

0
15

বেশিরভাগ মানুষেরই জীবনের গতিপথ পাল্টে যায় বিয়ের মাধ্যমে। তাই অনেকেই বিষয়টা উপভোগ করতে চান একটু ব্যতিক্রমীভাবে। বিয়ের আয়োজনটা যেমন অনেকে ভিন্ন করতে চান, তেমনি অনেকে চান স্থানটা হোক ভিন্ন, আবার অনেকে চান বিয়ের প্রস্তাবটাই হোক না অন্যদের চেয়ে ভিন্নতর। জাপানের এক যুবক এ প্রচেষ্টাতেই করে ফেলেন ভিন্ন ধরনের এক রেকর্ড।

টোকিওর শিল্পী ইয়াসুশি ইয়াশান তাকাহাসি তার প্রেমিকা নাৎসুকিকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন জাপানের গোটা হোক্কাইডো দ্বীপ জুড়ে। পুরো দ্বীপজুড়ে লিখে দিয়েছেন ‘ম্যারি মি’। এতে কোনো রঙ খরচ হয়নি। খরচ হয়েছে তেল। আর ছয়টি মাস। কারণ এ ‘ম্যারি মি’ লেখাটি তিনি কোনো রং তুলি দিয়ে লেখেননি, লিখেছেন গুগল ম্যাপ আর জিপিএস লোকেটর দিয়ে।

৩১ বছর বয়সী ইয়াশান ছয় মাস সময়ের মধ্যে হোক্কাইডো দ্বীপে ৪,৪৫১ মাইল রাস্তা পার করেছেন ‘ম্যারি মি’ লেখার জন্য। ২০০৮ সাল থেকে তিনি এই শিল্পকর্ম করছেন। এর আগে শান্তির প্রতীক পায়রার ছবি এঁকেছিলেন এই পদ্ধতিতে।

ইয়াশান প্রথমে কাগজের ম্যাপ দেখে নিজের গন্তব্য ঠিক করে নিতেন। ঠিক করে নিতেন কোথায় কোথায় জিপিএস লোকেটর অন করবেন, কোথায় অফ রাখবেন। সেই মত গাড়িতে সব ব্যবস্থা করে জিপিএস ডিভাইস নিয়ে বেরিয়ে পড়েন। জিপিএস অন করা অবস্থান গুগল ম্যাপে রেকর্ড হতে থাকে হলুদ রংয়ের রেখা বা বিন্দু দিয়ে। এ ভাবেই লিখে বা এঁকে ফেলতে পারেন যা ইচ্ছে।

কিন্তু যার জন্য এত কষ্ট করেছেন ইয়াশান, তার জবাবটা শেষ পর্যন্ত কেমন হলো? পাগল বলে ঠেলে দিলেন, না কি অন্য কিছু? হ্যাঁ, দ্বিতীয়টাই ঠিক। তার এ ভালোবাসাময় কষ্ট দেখে নাৎসুকি বলে দেন, ইয়েস।