কাঁদলেন সোনালি বেন্দ্রে

0
30
সোনালি বেন্দ্রে
সোনালি বেন্দ্রে

সোনালি বেন্দ্রের শরীরে হাইগ্রেড ক্যানসার ধরা পড়েছে, আর তা ছড়িয়ে পড়ছে সারা দেহে। চিকিৎসকদের মতে, সোনালি বেন্দ্রের দেহে ক্যানসার এখন চতুর্থ স্টেজে রয়েছে। আর তা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ ও আশঙ্কাজনক। মোটেও ভালো নয়। নিজের এই অসুস্থতার কথা গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক থেকে টুইটারে লিখেছেন বলিউডের একসময়ের জনপ্রিয় এই তারকা। নিউইয়র্কে এখন তাঁর চিকিৎসা হচ্ছে।

টুইটারে সোনালি বেন্দ্রের এই খবর জানতে পেরে বলিউডের অনেকেই তাঁকে বার্তা পাঠিয়েছেন। এই তালিকায় আছেন মাধুরী দীক্ষিত, অনুপম খের, অনিল কাপুর, ঋষি কাপুর, করণ জোহর, রিতেশ দেশমুখ, নেহা ধুপিয়া, অর্জুন কাপুর, ফারাহ খান, রিচা চাঢা, বিবেক ওবেরয়, মনীশ মালহোত্রা, সন্দীপ খোসলা, রাম কমল মুখোপাধ্যায়, রীতেশ পিল্লাই, সোনম কাপুরসহ অনেকে। তাঁরা প্রত্যেকেই সোনালি বেন্দ্রের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন। তাঁকে ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করার শক্তি জুগিয়েছেন। তাঁর পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। ভক্ত, শুভাকাঙ্ক্ষী আর সহকর্মীদের কাছ থেকে এমন অসংখ্য বার্তা প্রতিদিন পাচ্ছেন সোনালি বেন্দ্রে।

বলিউডে সোনালি বেন্দ্রের সহকর্মী মনীষা কৈরালা আর লিসা রে দুজনই ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করেছেন। তাঁর এখন অনেকটাই সুস্থ। ওভারিয়ান ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছিলেন মনীষা কৈরালা। নিউইয়র্কে চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে আবার কাজে ফিরে তিনি সবাইকে অবাক করে দেন। শোনা যায়, মনীষা নাকি কেমোথেরাপি চলার সময় শুটিংও করেছিলেন। ২০০৯ সালে লিসা রের দেহে ব্লাড ক্যানসার (মাইয়েলোমা) ধরা পড়ে। মিডিয়া থেকে সরে গিয়ে চিকিৎসা শুরু করেন লিসা। সুস্থ হয়ে ফিরে আসেন। ২০১০ সালে জানালেন, স্টেম সেল প্রতিস্থাপনের পর তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন। সোনালি বেন্দ্রেকে তাঁরা যে বার্তা পাঠিয়েছেন, সেখানে ছিল সেই ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে তাঁদের জয়ী হওয়ার কথা।

সোনালি বেন্দ্রে এখন আছেন নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে। চিকিৎসার ফাঁকে যখনই সুযোগ পান, টুইটারে যোগ দেন। সবার বার্তা পড়েন, তার জবাব দেন। গত শনিবার তিনি বলিউডের সবার বার্তার আলাদা আলাদা জবাব দিয়েছেন। এ ছাড়া অন্য সবাইকে বার্তার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

জিটিভির রিয়েলিটি শো ‘ইন্ডিয়াস বেস্ট ড্রামেবাজ’-এ অন্যতম বিচারক ছিলেন সোনালি বেন্দ্রে। কিন্তু ক্যানসার ধরা পড়তেই এ অনুষ্ঠান থেকে অব্যাহতি নেন। তাঁর জায়গায় এখন বিচারকের আসনে বসেছেন আরেক বলিউড তারকা হুমা কুরেশি। এই প্রতিযোগিতার বিচারক বিবেক ওবেরয়ের বার্তার জবাবে সোনালি বেন্দ্রে লিখেছেন, ‘“ইন্ডিয়াস বেস্ট ড্রামেবাজ” খুব মিস করছি। আরও মিস করছি তোমাদের।’

জানা গেছে, ক্যানসার ধরা পড়ার পর সোনালি বেন্দ্রের মানসিক শক্তি দেখে সবাই তাঁর প্রশংসা করেছেন। কিন্তু এবার সোনালি বেন্দ্রে কেঁদেছেন। জানা গেছে, গতকাল টুইটারে একটি বার্তা দেখে চোখ ভিজে যায় তাঁর। সেই বার্তা লিখেছেন দিব্যা দত্ত। বলিউডে আসার পর এই দিব্যা দত্তের সঙ্গে প্রথম বন্ধুত্ব হয় সোনালি বেন্দ্রের।

সোনালি বেন্দ্রের প্রথম ছবি ‘আগ’ মুক্তি পায় ১৯৯৪ সালে। এই ছবির জন্য তিনি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পান। এরপর ২০১৩ সাল পর্যন্ত তিনি অর্ধশতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন। তাঁর বেশির ভাগ ছবি ব্যবসাসফল হয়েছে। অভিনয় করেছেন তামিল, তেলেগু, মারাঠি আর কান্নাড়া ভাষার ছবিতে। ‘বোম্বে’ ছবির ‘হাম্মা হাম্মা’ গানের সঙ্গে নেচে সবার নজরে পড়েন তিনি। এরপর ‘দিলজ্বলে’, ‘ভাই’, ‘ডুপ্লিকেট’, ‘মেজর সাহাব’, ‘জখম’, ‘সারফারোশ’, ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’-এর মতো ছবি দিয়ে তিনি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন।

দেড় দশক আগে তেলেগু ছবি ‘শঙ্করদাদা এমবিবিএস’-এর পর প্রায় অন্তরালে চলে যান সোনালি বেন্দ্রে। বলিউডের চলচ্চিত্র পরিচালক গোল্ডি বহেলকে ২০০২ সালে বিয়ে করেন সোনালি বেন্দ্রে। বিবাহিত জীবনে সন্তানসম্ভবা হতেই পুরোপুরি সংসারজীবনে নিজেকে বেঁধে ফেলেন। তাঁদের ১৩ বছরের একটি ছেলে আছে।

LEAVE A REPLY