দেশেভেদে ভালোবাসার ভিন্ন মানে

0
55

ভালোবাসা শব্দটির কত দেশে কত মানে! বাংলায় একটা সময় অবধি ‘একবার বলো উত্তম কুমার’ আর ‘আই লাভ ইউ’ বাক্য দুটোর মানে ছিল একই। ডেটিং বিশেষজ্ঞদের মতে, ভৌগলিক অবস্থানের পরিপ্রেক্ষিতেই বদলে যায় ভালোবাসা, বদলে যায় ভালোবাসা প্রকাশের ধরনও। কেউ ‘টি আমো’ বলেন, কেউ বা ‘আহিব্বিক’। আসলে একই কথা নানাজন নানাভাবে প্রকাশ করেন।

চলুন তাহলে জেনেন নেওয়া যাক দেশে বিদেশে ভালোবাসার মানে…

জাপান
জাপানিদের ভাষায় সরাসরি ‘আমি তোমাকে ভালোবাসি’ বলা নেই। এখানে ‘ভালোলাগা’ (সুকি) এবং ‘স্নেহ’ (আই) এর কাছাকাছি শব্দ দিয়েই অনুভূতি প্রকাশ করা হয়। ‘আই শাইটিরু’ শব্দটির অর্থ ‘আমি তোমাকে ভালোবাসি’র কাছাকাছি কিছুটা।

ফ্রান্স
প্রেমের দেশ ফ্রান্স। যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় ফ্রান্সে ‘আই লাভ ইউ’ বলা তেমন ঘন ঘন না হলেও ফ্রান্সের বেশিরভাগ মানুষই সম্পর্কে প্রবেশের প্রায় দুই মাস বাদে এই জাদুবাক্যটি বলে থাকেন। হয়তো অল্প আলাপ হয়েছে, কিন্তু প্রতি সপ্তাহে তিন চার বার ডেটিং এখানে অস্বাভাবিক নয়। ফ্রান্সে, বান্ধবী বা বন্ধুকে বন্ধুদের সঙ্গে আলাপ করানো হয় সাধারণত কয়েকটা ডেটিং-এর পরেই এবং বাবা-মায়ের সাথে আলাপ করানো হয় সাধারণত এক থেকে তিন মাস পরে।

ইরাক
ভালোলাগা এবং ভালোবাসা- আরবিতে একইভাবে লেখা হয়। অন্য অনেক দেশের ভালো লাগা থেকে ভালোবাসায় যান মানুষ। ইরাকে, ‘আ’শাখিচ’ (আমি তোমাকে ভীষণ ভালোবাসি) বা অমুট আলাইচ (আমি তোমাকে ভালোবেসে মরে যেতে পারি) বলেও প্রেমের কথা জানান।

ইরান
২০ শতাব্দীর ইরানে, সাধারণত পুরুষরাই আই লাভ ইউ বলে সম্পর্ক শুরু করতেন। এ সময় ভালোবাসার কথা বললে বিয়ে করতেই হতো এবং কন্যার বাবা মায়ের কাছে গিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিতে হতো। ১৯৭৯ সালের ইসলামিক বিপ্লব নারীদের জন্য প্রেমের পৃথিবীর রঙ বদলে দেয়। নীতি পুলিশরা রাস্তায় ঘুরে ঘুরে অবিবাহিত সম্পর্কের ক্ষেত্রে দাদাগিরি ফলাতে থাকে। ২০০৯ সাল পর্যন্ত ইরানের ৬০% জনসংখ্যার বয়স ৩০ এর চেয়েও কম ছিল এবং প্রেমের অভিব্যক্তিও স্বাভাবিকভাবেই বদলে যায়।

চীন
ডেটিং করার সময় কোনো পুরুষ ‘ও আই নি’ বলছেন মানে তিনি একটি বিশেষ সম্পর্ক চাইছেন। এর আগে, একজন নারী তার হাত ধরতে, চুমু খেতে, সিনেমা যেতে পারে। কিন্তু জনসমক্ষে প্রেমিক-প্রেমিকা হিসেবে সম্পর্কের জানান দিতে বা যৌনতা করার আগে এটি বলতেই হবে।

দক্ষিণ কোরিয়া
সাধারণত এই দেশে স্বামী স্ত্রীকে, এমনকি অভিভাবক বাচ্চাদের মধ্যেও ‘আমি তোমাকে ভালোবাসি’ বলার বিশেষ চল নেই। সকলেই জানে ভালোবাসা রয়েছে সম্পর্কে, কিন্তু বারবার মুখে বলে ভালোবাসার প্রমাণ বিশেষ কেউ দেন না। তবে গত কয়েক দশক ধরে, ‘আমি তোমাকে ভালোবাসি’ বলার পশ্চিমা সংস্কৃতি, সিনেমা বা অন্য নানা মাধ্যমেই এই দেশের প্রেমের সম্পর্কে বেশ প্রভাব ফেলেছে।