দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ-নেদারল্যান্ড একটি অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত

5

হেগ: দীর্ঘ পাঁচ বৎসরব্যাপী একটি দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতামূলক প্রকল্পের আওতায় নেদারল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন CBI (the Centre for the Promotion of Imports from developing countries) নামক একটি সংস্থা বাংলাদেশের নির্বাচিত ১০টি পোশাক শিল্প কারখানাকে তাদের তৈরী পোশাকের গুণগত মান বৃদ্ধি থেকে শুরু করে পরিবেশবান্ধব উপায়ে শিল্পকে কিভাবে বিদেশী ক্রেতাদের কাছে তুলে ধরা যায় সেজন্য সবরকম প্রশিক্ষণ প্রদান করে আসছে। প্রকল্পের শুরু থেকেই, বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের গুণগত মান থাকার পরেও কেবল সফলভাবে বাজারজাত করণের অভাবে ক্ষুদ্র ও মাঝারি স্কেলের পোশাক শিল্প ব্যবসায়ীরা ভাল ক্রেতা না পাওয়া সহ বাজারজাতকরণের নানা সমস্যার মুখোমুখি হয় তা চিহ্নিত করে সেভাবে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ক্ষুদ্র ও মাঝারি নিম্নোক্ত পোশাক শিল্পকারখানাগুলোর স্বত্তাধিকারী/ উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের CBI তাদের নিজস্ব তত্ত্বাবধানে বাছাই পূর্বক পণ্যের গুণগত মান বৃদ্ধি, ম্যাচ মেকিং-এ অংশগ্রহণ ও ক্রেতাদের সাথে negotiation কিভাবে সফলভাবে করতে হয় সেবিষয়ে বিগত পাঁচ বছর ধরে প্রশিক্ষন দিয়ে আসছে।

CBI একইসময়ে প্রশিক্ষনার্থী/ অংশগ্রহণকারীদের বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীতে নিয়ে গিয়ে হাতে-কলমে ক্রেতার সাথে আলাপ-আলোচনার সুযোগ করে দেয়। ফলশ্রুতিতে, ম্যাচ মেকাং-এ অংশগ্রহনকারীগণ এখন আন্তর্জাতিক অনেক নামীদামী ক্রেতাদের সাথে ব্যবসা করার মতো যোগ্যতা অর্জনের মাধ্যমে নিজেদেরকে সফল, সক্ষম ও ভবিষ্যতমূখী ব্যবসায়ী হিসেবে গড়ে তুলেছে। গত ২৬ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে নেদারল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল-এর সরকারী বাসভবনে এক উন্মুক্ত আলোচনায় উঠে আসে এই সফলতার গল্প। CBI-এর প্রতিনিধি জনাব হুগো ভারহুয়েব (Mr. Hugo Verhoeven) বাংলাদেশে তাদের এই প্রকল্পকে সফলতার এক অনন্য উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন “marketing” (বাজারজাতকরন)-এ বাংলাদেশের বিশেষ মনযোগী হওয়া প্রয়োজন। CBI-এর অপর প্রতিনিধি জনাব সেরগি লিয়ন (Mr. Serge Leon) বলেন বাংলাদেশের প্রতিটি পোশাক শিল্প কারখানায় বিদেশী ক্রেতা আকর্ষণের জন্য প্রয়োজন একটি রুচি সমৃদ্ধ এবং গুণগত উৎকর্ষতা সম্পন্ন “showroom” or “display room” যা পরিদর্শন করলে বিদেশী ক্রেতারা যেন বুঝতে পারেন এই শিল্প বিশ্ব মানের। জনাব সেরগি লিয়ন উদাহরণ স্বরূপ চট্রগ্রামে অবস্থিত Denim Expert LTD এর showroom–এর উদাহরণ দিয়ে বলেন এই শিল্প এখন তাদের উদ্ভাবনী প্রদর্শক, ফলে বিশ্বের যেকোন ক্রেতাকে আকর্ষণ করা সম্ভব। এই আলোচনায় অংশগ্রহণ করে বাংলাদেশ থেকে আগত শিল্প মালিকরা আমাদের রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (EPB)-র এই বিষয়ে বিশেষভাবে মনোযোগী হয়ে পোশাক শিল্পের middle management (মধ্যমশ্রেণীর কর্মকর্তাদের) এর জন্য বিশেষায়িত মার্কেটিং প্রশিক্ষণ আয়োজনের জন্য উদ্যোগী হওয়ার অনুরোধ করেন। CBI-এর বাংলাদেশ প্রতিনিধি জনাব মিনহাজ এ ব্যাপারে বলেন, EPB যদি চায় তারা সবরকম সহযোগিতা দেবার চেষ্টা অব্যাহত রাখবেন।

রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল বাংলাদেশ থেকে আগত প্রতিনিধি দলকে এরকম একটি সফলতার কাব্য রচনার সুযোগ দানের জন্য তাদেরকে অভিনন্দন জানিয়ে এ প্রকল্প থেকে লব্ধ জ্ঞানকে তাদের সহযোগী অন্যান্য শিল্পের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য BGMEA-এর মাধ্যমে একটি সাংগঠনিক কাঠামো তৈরীর প্রস্তাব করেন। রাষ্ট্রদূত বেলাল একইভাবে CBI–কে এই ধরণের প্রকল্প অব্যাহত রাখার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করেন। একইসাথে দূতাবাসের সাথে সমন্বয়পূর্বক বাংলাদেশের হস্ত শিল্প ও হোম ডেকর সেক্টরের উন্নয়নের জন্য যে পঞ্চবার্ষিকী প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে তার জন্য বিশেষভাবে কৃতজ্ঞতা জানান। সভা শেষে সকল অতিথিকে বাংলাদেশ হাউজে নৈশভোজে আপ্যায়িত করা হয়।