নিউ ইয়র্কে বাস টার্মিনালে ‘হামলাকারী’ বাংলাদেশি

0
118
নিউ ইয়র্কে বাস টার্মিনালে ‘হামলাকারী’ বাংলাদেশি
নিউ ইয়র্কে বাস টার্মিনালে ‘হামলাকারী’ বাংলাদেশি

নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটনে সকালের ব্যস্ত সময়ে বাস টার্মিনালের বিস্ফোরণের ঘটনায় যাকে আটক করেছে পুলিশ, ওই ব্যক্তি বাংলাদেশি বলে পুলিশ জানিয়েছে। সোমবার স্থানীয় সময় সকালে অফিসযাত্রার সময় পোর্ট অথরিটি বাস টার্মিনালে বিস্ফোরণের পর এক ব্যক্তিকে আহতাবস্থায় গ্রেফতারের কথা জানিয়েছিল নিউ ইয়র্ক পুলিশ।

পরে নিউ ইয়র্ক পুলিশ কমিশনার জেমস ও নীল সাংবাদিকদের জানান, ২৭ বছর বয়সী ওই যুবকের নাম আকায়েদ উল্লাহ। পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্ধৃত করে নিউ ইয়র্ক পোস্ট জানিয়েছে, ওই যুবক ব্রæকলিনে থাকেন এবং তিনি বাংলাদেশ থেকে সাত বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছিলেন।

এই বিস্ফোরণে আকায়েদ ছাড়া আর চারজন আহত হয়েছেন বলে নিউ ইয়র্ক ফায়ার ডিপার্টমেন্ট জানিয়েছে। তবে তাদের কারও অবস্থাই গুরুতর নয়। হামলাকারী আইএস দ্বারা অনুপ্রাণিত বলে মনে করছেন নিউ ইয়র্ক পুলিশের সাবেক কমিশনার বিল ব্রাটন।

তিনি এনবিসি নিউজকে বলেন, ‘গত সাত বছর ধরে সে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছে এবং খুব সম্ভবত আইএসআইএসের নামে এ বিস্ফোরণে ঘটিয়েছে। তাই, অবশ্যই এটা সন্ত্রাসী হামলা এবং অবশ্যই পরিকল্পিত।’

বিবিসি জানায়, আহত ব্যক্তি হয়তো একটি আত্মঘাতী হামলা চালাতে চেয়েছিল । তার দেহে তার বাঁধা ছিল এবং তার সঙ্গে একটি পাইপ বোমা ছিল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে, কথিত সন্দেহভাজন লোকটি মাটিতে পড়ে আছে, তার কাপড়চোপড় ছেঁড়া এবং শরীরের ওপরের অংশ ক্ষতবিক্ষত।

পাইপ বোমাটি আংশিকভাবে বিস্ফোরিত হয় বলে খবর পাওয়া গেছে। নিউইয়র্কের পোর্ট অথরিটি নামের বাস টার্মিনালে সকালবেলার যাত্রীদের ভিড়ের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে । অন্য আরও তিনজনের সামান্য আহত হবার খবরও পাওয়া যায়। বিস্ফোরণের পর পুরো এলাকায় লোকজনের ছুটোছুটি-হুড়োহুড়ি শুরু হয়।

সন্ত্রাস দমন পুলিশ এবং দমকল বাহিনীর লোকেরা শত শত লোককে বাস টার্মিনাল এবং তার নিচের পাতাল রেল স্টেশন থেকে বের করে নিয়ে আসে। ঘটনার পর টার্মিনালটি এবং টাইমস স্কোয়ার সাবওয়ে স্টেশন বন্ধ করে দেয়া হয়।

LEAVE A REPLY