পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত ব্রিটিশ পার্লামেন্ট!

0
72
পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত ব্রিটিশ পার্লামেন্ট!
পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত ব্রিটিশ পার্লামেন্ট!

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে পর্ন দেখার খবর নতুন নয়। তবে নানা যৌন কেলেঙ্কারি ও হয়রানির বিরুদ্ধে যখন পশ্চিমা দেশগুলোতে রীতিমতো আন্দোলন চলছে, তখন আবারও খবরের শিরোনাম হলো ব্রিটিশ পার্লামেন্ট। দ্য টেলিগ্রাফ জানাচ্ছে, ২০১৭ সালের জুন থেকে অক্টোবর পর্যন্ত চার মাসের কিছু বেশি সময়ে পার্লামেন্টের ভেতরকার কম্পিউটারগুলো থেকে ২৪ হাজার বারের বেশি বিভিন্ন পর্ন সাইটে প্রবেশ করা হয়েছে।

প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১৬০ বার এবং প্রতি নয় মিনিটে একবার পর্ন ওয়েবসাইটগুলোতে ঢোকা হয়েছে। সোমবার এ তথ্য প্রকাশ করেছে দেশটির প্রেস অ্যাসোসিয়েশন (পিএ)।

তথ্য জানার স্বাধীনতাবিষয়ক আইনের অধীনে পিএর আবেদনের প্রেক্ষিতে পার্লামেন্টে এ পরিসংখ্যান দেয় কর্তৃপক্ষ। এতে জানানো হয়, গত জুনের সাধারণ নির্বাচনের পর থেকে অক্টোবর মাসের শুরু পর্যন্ত পার্লামেন্টারি নেটওয়ার্কে সংযুক্ত ডিভাইসগুলো থেকে মোট ২৪ হাজার ৪৭৩ বার পর্ন সাইটগুলোতে ঢোকা হয়।

গত ডিসেম্বরে যৌন হয়রানির অভিযোগে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং মন্ত্রী ড্যামিয়ান গ্রিন বরখাস্ত হন।

প্রকাশিত তথ্যে আরও জানা গেছে, ২০১৬ সালে পর্ন সাইটে ঢোকার ১ লাখ ১৩ হাজার ২০৮টি রিকোয়েস্ট ব্লক করে পার্লামেন্ট কর্তৃপক্ষ। এর আগের বছর এই সংখ্যা ছিল দুই লাখ ১৩ হাজার ২০ বার। পার্লামেন্টের একজন মুখপাত্র অবশ্য দাবি করেছেন, এ ধরনের সাইট ভিজিটের সব ঘটনা ইচ্ছাকৃত নয় এবং সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এমন ঘটনার সংখ্যা কমেছে।

LEAVE A REPLY