বেতন বৃদ্ধিকে অপমানজনক অ্যাখ্যা দিয়ে প্রতিবাদ করছেন চিকিৎসকরা

0
131
বেতন বৃদ্ধিকে অপমানজনক অ্যাখ্যা দিয়ে প্রতিবাদ করছেন চিকিৎসকরা
বেতন বৃদ্ধিকে অপমানজনক অ্যাখ্যা দিয়ে প্রতিবাদ করছেন চিকিৎসকরা

যেকোনও প্রতিষ্ঠানে বেতন বৃদ্ধির বিষয়টি সম্মান বা প্রণোদনার অংশ হিসেবেই দেখা হয়ে থাকে। তবে বেতন বৃদ্ধির বিষয়টিকে নিজেদের জন্য অপমানজনক অ্যাখ্যা দিয়ে তার প্রতিবাদ জানিয়েছেন কানাডার কুইবেক রাজ্যের চিকিৎসকরা। প্রতিবাদলিপিতে ইতোমধ্যে ৭ শতাধিক চিকিৎসক ও মেডিক্যাল শিক্ষার্থী স্বাক্ষর করেছেন।

মূলত প্রদেশটির নার্সদের বেতন ও অন্যান্য সু্বিধাদির অপ্রতুলতার প্রতিবাদ জানাতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছেন চিকিৎসকরা।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়, চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে ফরাসি ভাষায় এক লিখিত পত্রে বলা হয়েছে, ‘আমরা চিকিৎসকরা শক্তিশালী সরকারি পদ্ধতিতে বিশ্বাস করি। তবে সম্প্রতি আমাদের বেতন বৃদ্ধির ঘটনার প্রতিবাদ জানাই এবং এ বিষয়ে আমাদের মেডিক্যাল ফেডারেশনের সঙ্গে আলোচনার দাবি জানাচ্ছি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম নিউজউইকের খবরে বলা হয়েছে, বেতন বাড়ানোর প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি কানাডীয় চিকিৎসক, চিকিৎসাবিশেষজ্ঞ, স্থানীয় বাসিন্দা ও মেডিক্যাল শিক্ষার্থীরা তাদের জন্য বরাদ্দ করা অর্থ নার্সদের জন্য পুনর্বরাদ্দ এবং রোগীদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিতে তাগিদ দিয়েছেন।
চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে ফরাসি ভাষায় এক প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়েছে, ‘আমরা কুইবেকের চিকিৎসকরা শক্তিশালী সরকারি পদ্ধতিতে বিশ্বাস করি। তবে সম্প্রতি আমাদের মেডিক্যাল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে বেতন বৃদ্ধির ঘটনার প্রতিবাদ জানাই।’

ওই আবেদনে বলা হয়েছে, ‘আমাদের নার্স, করণিক এবং অন্য পেশাজীবীরা খুবই জটিল পরিস্থিতি মোকাবিলা করছেন। ঠিক তখন এই বেতন বাড়ানোর বিষয় বেদনাদায়ক। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ক্ষমতা কেন্দ্রীয়করণ এবং সাম্প্রতিক বছরগুলোয় বাজেট কাটছাঁটের কারণে যখন আমাদের রোগীরা প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবাহীন থাকছে, তখন তাদের বেতন বাড়ানোর বিষয়টি আতঙ্কজনক।’

কুইবেকের একটি নার্সেস ইউনিয়ন কয়েক মাস ধরে রাজ্যে নার্স সংকটের কথা জানিয়ে নিয়োগ দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে। এছাড়া একজন নার্স কতজন রোগীর দেখাশোনা করবেন সে বিষয়ে আইন প্রণয়নের দাবি জানিয়েছে। সংগঠনটি জানিয়েছে, তাদের সদস্যরা ক্রমবর্ধমান হারে অতিরিক্ত কাজ করছে। এছাড়া নার্সরা সম্প্রতি বেশ কয়েক বার তাদের কর্মপরিবেশ উন্নয়নের জন্য আন্দোলন করেছেন।

কানাডার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সিবিসি নিউজের খবরে বলা হয়, গত ফেব্রুয়ারিতে কুইবেকের চিকিৎসাবিশেষজ্ঞ ফেডারেশন সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে প্রদেশের ১০ হাজার চিকিৎসকের বেতন এক দশমিক চার শতাংশ বৃদ্ধি করে। এতে তাদের পেছনে সরকারের বর্তমান ৪৭০ কোটি মার্কিন ডলার বরাদ্দ ২০২৩ সালে বেড়ে দাঁড়াবে ৫৪০ কোটি মার্কিন ডলারে্। এখন কুইবেকের প্রত্যেক চিকিৎসকের বার্ষিক আয় গড়ে প্রায় চার লাখ ৩ হাজার ৫৩৭ মার্কিন ডলার। অর্থাৎ তিন কোটি ৩৬ লাখ ১২ হাজার টাকারও বেশি।

LEAVE A REPLY