বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে কুষ্টিয়ায় লালন সাঁইজির আখড়ায় শুরু হচ্ছে দুই দিনব্যাপী লালন মেলা ২০১৬। কুষ্টিয়ার ব্যবস্থাপনায় কুষ্টিয়া জেলা শিল্পকলা একাডেমি ও লালন একাডেমি কুষ্টিয়ার সহযোগিতায় ছেঁউড়িয়ায় ফকির সাঁইজির মাজার প্রাঙ্গণে আগামী ১০ ও ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দুই দিনব্যাপী লালন উত্সব ও মেলা ২০১৬।

ফকির লালন শাহের সৃষ্টিকর্ম ও তার বিচরণক্ষেত্র নিয়ে গবেষণা ও এদেশের আপামর জনসাধারণের লুপ্তপ্রায় সাংস্কৃতিক বোধকে আরও প্রাণবন্ত করতে এবং দেশের ঐতিহ্যময় সাংস্কৃতিক ধারা ও দর্শন চিন্তার ধারাবাহিক ইতিহাস নির্মাণের লক্ষ্যেই এই আয়োজন।
এ উপলক্ষে গতকাল দুপুরে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার সেমিনার হলে একটি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, শিল্পকলা একাডেমির সচিব জাহাঙ্গীর হোসেন চৌধুরী ও একাডেমির কর্মকর্তাবৃন্দ।

লিয়াকত আলী লাকী বলেন, ‘লালন একাডেমিকে লালনের ভাবাদর্শে নান্দনিক করতে উদ্যোগ গ্রহণ করছে শিল্পকলা একাডেমি। আমরা আন্তর্জাতিকমানের একটি লালন ইনস্টিটিউট নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি, যেখানে দেশি-বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীরা এক বছরের ডিপ্লোমা কোর্স করতে পারবে। প্রতিবছর পালিত হবে এই লালন উত্সব। বাউল সংগীত পরিবেশন ও সংগ্রহ হবে এই কর্মসূচির অন্যতম কাজ।’
১০ জন লালন অনুরাগী প্রবীণ বাউল সাধক এই উত্সবের উদ্বোধন করবেন। সেখানে গড়াই নদীতে নৌকায় একটি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে। উত্সবে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা থেকে প্রতিশ্রুতিশীল ৬৪ জন লালন সংগীত শিল্পী, ৪০ জন বাউল ও জনপ্রিয় লালন সংগীত শিল্পী সংগীত পরিবেশন করবেন। এ ছাড়া থাকছে লালন দর্শন, লালন সংগীতের সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও প্রসার বিষয়ক সেমিনার ও মুক্ত আলোচনার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY