১১ মার্চই ডাকসু নির্বাচন

0
44

পূর্বনির্ধারিত ১১ মার্চেই হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচন। আজ সোমবার সকালে নির্বাচন পরিচালনায় নিযুক্ত প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক এস এম মাহফুজুর রহমান আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছেন।

সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনের সম্মেলন কক্ষে ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। এ সময় অন্যদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোর প্রাধ্যক্ষ, প্রক্টর ও নির্বাচন পরিচালনায় নিযুক্ত রিটার্নিং কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ছিলেন ডাকসু নির্বাচন ঘিরে গঠিত বিভিন্ন কমিটির সদস্যরাও।

ডাকসুর খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে আজই। আবাসিক হলগুলোর নোটিশ বোর্ড ও www.ducsu.du.ac.bd ওয়েবসাইটে এ তালিকা প্রকাশ করা হবে। তালিকা যাচাই-বাছাইয়ের পর চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে ২০ ফেব্রুয়ারি। ১৯ থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি শুরু হবে মনোনয়নপত্র বিতরণ। যাচাই-বাছাইয়ের পর আগামী ৩ মার্চ হলের নোটিশ বোর্ড ও ওয়েবসাইটে প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে। আর ভোট গ্রহণ হবে আগামী ১১ মার্চ সকাল আটটা থেকে বেলা দুইটা পর্যন্ত।

হল সংসদ নির্বাচনের তফসিলও আবাসিক হলগুলোর নোটিশ বোর্ডে টাঙিয়ে দেওয়া হচ্ছে। চূড়ান্ত হওয়া ডাকসুর গঠনতন্ত্র ও আচরণবিধি অনুযায়ীই নির্বাচন হচ্ছে। অর্থাৎ, ভোটকেন্দ্র হচ্ছে আবাসিক হলেই।
যেসব পদে নির্বাচন হবে
ডাকসু ও হল সংসদের গঠনতন্ত্রের ৬(খ) ও ৭(ক) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সংসদে ২৫টি পদে নির্বাচন হবে।
সহসভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সহসাধারণ সম্পাদক, স্বাধীনতাসংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক, কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদক, আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক, সাহিত্য সম্পাদক, সংস্কৃতি সম্পাদক, ক্রীড়া সম্পাদক, ছাত্র পরিবহন সম্পাদক, সমাজসেবা সম্পাদক ও ১৩টি সদস্যপদ।

আর গঠনতন্ত্রের ১৭ ও ৫৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী হল সংসদে নির্বাচন হবে ১৩টি পদে। এগুলো হলো সহসভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সহসাধারণ সম্পাদক, সাহিত্য সম্পাদক, সংস্কৃতি সম্পাদক, পাঠকক্ষ সম্পাদক, অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া সম্পাদক, বহিরঙ্গন ক্রীড়া সম্পাদক, সমাজসেবা সম্পাদক ও ৪টি সদস্যপদ।

সময়সূচির বিস্তারিত
১৮ ফেব্রুয়ারি বিকেল চারটা পর্যন্ত ভোটার তালিকায় ভুলত্রুটি সংশোধনের আপত্তি গ্রহণ করা হবে। হলগুলোর রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর এ আপত্তি দাখিল করতে হবে৷ ২০ ফেব্রুয়ারি বিকেল চারটায় হলের নোটিশ বোর্ড ও ওয়েবসাইটে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে। ১৯ থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত হলগুলোর প্রাধ্যক্ষের কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র নেওয়া যাবে।

২৬ ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট হলের রিটার্নিং কর্মকর্তারা মনোনয়নপত্র গ্রহণ করবেন। ওই দিন বেলা দুইটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনের সম্মেলন কক্ষে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করবেন হলের রিটার্নিং কর্মকর্তারা। পরদিন ২৭ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১২টায় হলগুলোর নোটিশ বোর্ড ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে ডাকসু নির্বাচনের প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা।

প্রাথমিক প্রার্থী তালিকার বিষয়ে কোনো আপত্তি থাকলে ২৮ ফেব্রুয়ারি দুপুর ১২টার মধ্যে ডাকসুর সভাপতি (উপাচার্য) ও হল পর্যায়ে হল সংসদের সভাপতির (হল প্রাধ্যক্ষ) কাছে লিখিতভাবে জানাতে হবে। আগামী ২ মার্চ বেলা একটা পর্যন্ত লিখিত ও স্বাক্ষরকৃত আবেদনসহ হলের রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে সশরীরে হাজির হয়ে যেকোনো প্রার্থী তাঁর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে পারবেন। এরপর আগামী ৩ মার্চ বিকেল চারটায় প্রকাশ করা হবে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা। ৫ মার্চ প্রকাশ করা হবে সম্পূরক ভোটার তালিকা।

আগামী ১১ মার্চ সকাল আটটা থেকে বেলা দুইটা পর্যন্ত ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ হবে। আবাসিক ও অনাবাসিক শিক্ষার্থীরা তাঁদের হলের বৈধ পরিচয়পত্র দেখিয়ে ভোট দেবেন। ভোট গণনা শেষে সেদিনই ঘোষণা করা হবে নির্বাচনের ফলাফল।