আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, ‘আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি পৃথিবীর কারও শক্তি নেই আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করার। আওয়ামী লীগকে কেউ কোনো দিন নিঃশেষ করতে পারবে না।’
তিনি বলেন, ‘দেশের কল্যাণের জন্য আওয়ামী লীগের মতো এত ত্যাগ কেউ করেনি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, আওয়ামী লীগ এগিয়ে যাচ্ছে। আসুন আমরা ঐক্যবদ্ধ হই।’
আজ শনিবার সকালে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে সাংগঠনিক প্রতিবেদন উপস্থাপনকালে তিনি এসব কথা বলেন।
সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ গতানুগতিক কোনো দল নয়। শহীদদের রক্ত, জাতির পিতার রক্ত, হাজারও নেতা-কর্মীর রক্তের অনুভূতি এই আওয়ামী লীগ। আন্দোলন সংগ্রামে যে অনুভূতি সৃষ্টি হয়েছে সেই অনুভূতির নাম আওয়ামী লীগ।’
তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগে আছেন শহীদের সন্তানরা, আমাদের প্রধানমন্ত্রী আছেন, তিনি পিতৃহারা সন্তান। আমিও একজন শহীদের সন্তান। এই আওয়ামী লীগ দেশটাকে স্বাধীন করেছে। বাংলা ভাষার জন্য আন্দোলন করেছে। গণতন্ত্রের আন্দোলন করেছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘আজ আমাদের দল যেকোন সময়ের থেকে শক্তিশালী। আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করার জন্য এই দেশে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে, জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করেছে। হাজার হাজার নেতা-কর্মীকে হত্যা করেছে। তারপরও কিন্তু আওয়ামী লীগকে নিঃশেষ করতে পারেনি এবং কোনো দিনই পারবে না।’
সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা যতদিন আছেন তিনি নেতৃত্ব দেবেন। কিন্তু এই জননেত্রী যদি না থাকেন, আওয়ামী লীগ কিন্তু মরবে না। আওয়ামী লীগ একটি অজেয় সংগঠন। দেশের মানুষের জন্য, দেশের কল্যাণের জন্য আওয়ামী লীগের মতো এত আত্মত্যাগ কেউ করেনি।’
নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আমি আওয়ামী লীগের সন্তান। আওয়ামী লীগের ঘরে আমার জন্ম। আওয়ামী লীগ যখন ব্যথা পায় তখন আমার হৃদয়েও ব্যথা লাগে।দলের একজন কর্মী যদি ব্যথা পায় সেই ব্যথা আমিও পাই।’
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আজকের এই সম্মেলন একটি ঐতিহাসিক ও যুগান্তকারী সম্মেলন। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।’

LEAVE A REPLY