বাংলাদেশি আমেরিকান লায়ন্স ক্লাবের অভিষেক ও শপথ গ্রহণ

0
81
বাংলাদেশি আমেরিকান লায়ন্স ক্লাবের নতুন কমিটির সদস্যরা।
বাংলাদেশি আমেরিকান লায়ন্স ক্লাবের নতুন কমিটির সদস্যরা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের গুলশান টেরেসে ১৫ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বাংলাদেশি আমেরিকান লায়ন্স ক্লাবের নতুন কমিটির অভিষেক ও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের সভাপতি লায়ন শাহ নেওয়াজের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক লায়ন আশেফ বারী টুটুল ও লায়ন আশরাফুল হাসান বুলবুলের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেসনাল প্রক্লেমেশনপ্রাপ্ত, অ্যাক্সিডেন্ট কেসেস ও ইমিগ্রেশন বিষয়ে অভিজ্ঞ যুক্তরাষ্ট্র সুপ্রিম কোর্টের অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী।

প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন যুক্তরাষ্ট্র সুপ্রিম কোর্টের অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী।
প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন যুক্তরাষ্ট্র সুপ্রিম কোর্টের অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী।

আহ্বায়ক লায়ন মোহাম্মদ সাইদ, সদস্যসচিব লায়ন এ কে এম এ রশিদ, সমন্বয়কারী লায়ন ফাহাদ সোলায়মান ও লায়ন এম এস আলমের সহযোগিতায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর লায়ন নরমা মেন্ডেজ ক্রুজ, পিডিজি লায়ন এ কে এম আর ভূঁইয়া, লায়ন লরটা উ, লায়ন পিটার পারগলিস, ইমিডিয়েট পাস্ট প্রেসিডেন্ট লায়ন নাসির উদ্দিন, লায়ন মোস্তফা কামাল, নাইমা খান, রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি অ্যাটর্নি মঈন চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে লায়ন্স ইন্টারন্যাশনাল ও নিউইয়র্ক বাংলাদেশি আমেরিকান লায়ন্স ক্লাবের কর্মকাণ্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় লায়ন্স ক্লাবের সদস্যরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। সম্প্রতি রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের সমস্যা আলোকপাত করে তিনি বলেন, ‘উন্নত বিশ্বে এই রকম মানবতাবিরোধী হত্যাকাণ্ড মেনে নেওয়া যায় না। বিশ্ব সভ্যতাকে জাগ্রহ হতে হবে। অবশ্যই মানবতা রক্ষায় আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।’ এ ব্যাপারে লায়ন্স ইন্টারন্যাশনালকে তার সর্বশক্তি দিয়ে মিয়ানমারে গণহত্যা বন্ধ করার লবিং করার আহ্বান জানান তিনি।

লায়ন্স সদস্যদের শপথ গ্রহণ শেষে নৈশভোজ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন প্রবাসের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী রায়ান তাজ, রানু নেওয়াজ, প্রমিতা খান, কৃষ্ণা তিথি, রোকসানা মির্জা, শ্রাবন্তী ও রুপা।

LEAVE A REPLY