‘আমি’ নয়, মেসি বললেন ‘আমরা’

0
79
বিশ্বকাপে ওঠার নেপথ্যে সতীর্থদের প্রশংসা করলেন মেসি। ছবি: এএফপি
বিশ্বকাপে ওঠার নেপথ্যে সতীর্থদের প্রশংসা করলেন মেসি। ছবি: এএফপি

জাদুকরি জিয়নকাঠি ছিল যাঁর হাতে, সেই লিওনেল মেসির কাঁধে ভর করে আর্জেন্টিনা উঠেছে বিশ্বকাপে। হ্যাঁ, তিনি জাদুকরই বটে! কিটোর যে মাঠে আর্জেন্টিনা জেতেনি গত ১৬ বছরে, সে মাঠেই মেসি তাঁর দেশকে বিশ্বকাপের ছাড়পত্র পাইয়ে দিলেন হ্যাটট্রিক করে। সব আলো তাঁর দিকে। সারা বিশ্বের সংবাদমাধ্যমে মেসি আজ আলোড়ন। সামাজিক মাধ্যমের ট্রেন্ড। দেশকে একাই বিশ্বকাপে তোলা চাট্টিখানি কথা নয়।
অথচ ম্যাচ শেষে মেসি একবারও নিজের কথা বললেন না। বুঝিয়ে দিলেন বারবার, দলটা ‌১১ জনের। ভালোর ভাগ ১১ জনের। এর চেয়েও বড় কথা, ভালো খেলতে হলে ১১ জনকেই খেলতে হবে। জয়ের সৌরভ সতীর্থদের মধ্যে ভাগ করে দিয়ে মেসি বুঝিয়ে দিলেন, ‘আমি’ নয়, জিতেছে আসলে ‘আমরা’। নিজের কথা সেভাবে বলেন না কখনোই। এমনকি এমন এক ম্যাচের পরও সেভাবে নিজের প্রসঙ্গ আনতে দিলেন না ম্যাচ শেষের প্রতিক্রিয়ায়।
সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৯ হাজার ফুট উঁচুতে অবস্থিত কিটোয় ম্যাচ শেষে মেসির উক্তি, ‘এখানে খেলা নিয়ে সবাই একটু চিন্তিত ছিল। সৌভাগ্যজনকভাবে আমরা ভালো খেলেছি, লক্ষ্যটা পূরণ হয়েছে। সে জন্য ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, আমরা লক্ষ্য পূরণ করেছি।’
বিশ্বকাপে যেতে মুখিয়ে ছিলেন। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা থাকবে না, এটা মেসির কাছেও অভাবিত, ‘বিশ্বকাপে না থাকাটা হতো ভয়ংকর কিছু একটা। এই দলটা বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা রাখে। আমরা কিছুদিনের জন্য সংবাদমাধ্যম, কিংবা কথাটথা বলা এড়িয়ে চলেছি। এতে উপকারই হয়েছে। আমরা (দল) যদি হাতে হাত রেখে পথ চলি, তাহলে সবকিছু সহজ হয়ে উঠবে।’
গত তিন বছরে মেসি নিজে তিনটি বড় টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছেন। কিন্তু শিরোপাটাই জেতা হয়নি। ট্রফি জিততে ‘চ্যাম্পিয়নস লাক’ লাগে, সেটি তাঁর মতো ভালো কে বোঝে। কিন্তু টানা তিনটি টুর্নামেন্টের ফাইনালে ওঠা, কদিন আগেও র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান ধরে রাখা দলটিকে কেউ কেউ পাড়ার দলের খোঁচা দিচ্ছিল। এটাও যে ভালো লাগেনি, মেসি সেটি বুঝিয়ে দিলেন, ‘গত বিশ্বকাপ এবং দুটি কোপা আমেরিকায় যা ঘটেছে, তা ঠিক হয়নি। আমরা এবার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেতেও ভুগেছি। আশা করছি এবার তা (বিশ্বকাপ) জিততে পারব। আজকের দিনটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’
মেসি নিজে জানেন, এই ফুটবল দিয়ে লক্ষ্য পূরণ হবে না। তবে আপাতত প্রথম ধাপটা পার করাতে চেয়েছিলেন। এখন দল গুছিয়ে নেওয়ার যথেষ্ট সময় তো মিলবে। সেটাই বললেন, ‘আজকের (এ ম্যাচের পর) পর থেকে জাতীয় দলটা হবে অন্য রকম, এটা আরও বেড়ে উঠবে। জাতীয় দলের সঙ্গে থাকলে সব সময় নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করেছি, সেটা নিজের জন্য এবং দেশের জন্য।’

LEAVE A REPLY