বাংলাদেশি স্টুডেন্টস নাইটে মাতল মালয়েশিয়া

0
51
বাংলাদেশি স্টুডেন্টস নাইটে মাতল মালয়েশিয়া
বাংলাদেশি স্টুডেন্টস নাইটে মাতল মালয়েশিয়া

জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বাংলাদেশি স্টুডেন্টস নাইট (বিএসএন) ২০১৭।

দেশটির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ও পেশাজীবীদের উদ্যোগে গত শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় ইউনিভার্সিটি মালায়ার দেওয়ান টুঙ্কু চ্যান্সেলর হলে এটি অনুষ্ঠিত হয়।

অরুনিমা হোসাইন, নাজিফা হোসাইন সৃষ্টি ও মাইনুল হকের প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় আবহমান বাংলার কালজয়ী গানের সঙ্গে মনমাতানো নাচে হলভর্তি দর্শককে মাতিয়ে রাখেন মালয়েশিয়ার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বাংলাদেশি স্টুডেন্ট নাইটে অংশ নেয় ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালায়া, টিম স্পেকট্রা, এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি টেকনোলজি মালয়েশিয়া, জেস্ট ব্র্যান্ড, সেগি, হেল্প ইউনিভার্সিটিসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশি সাংস্কৃতিক দলের শিল্পীরা।

বিএসএনের পরিচালক রাশিক হায়দারের স্বাগত বক্তব্যের পর কুয়ালালামপুরে অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশনের লেবার কাউন্সিলর সাইদুল ইসলাম মুকুল তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশের গৌরবময় ইতিহাস তুলে ধরেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন মালায়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আওয়াং বুলগিবা আওয়াং মাহমুদ, অধ্যাপক গোফরান, সারা তানভীসহ আরো অনেকে।

পরে সামাজিক অবদানের জন্য বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিত্তিতে ‘বিএসএন অ্যাওয়ার্ড’ তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রজেক্ট ডিরেক্টর রাশিক আদিত হায়দার।

বাংলাদেশের পতাকার রঙের আদলে লাল-সবুজে গড়া মঞ্চ আর বাংলা গানের সঙ্গে নাচ ছিল অন্যরকম এক অনুভূতি। সবকিছু মিলে মালয়ার দেওয়ান টুঙ্কু চ্যান্সেলর হল একখণ্ড বাংলাদেশে পরিণত হয়।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ থেকে আসা ব্যান্ড ‘আর্টসেল’ গান গেয়ে মুহূর্তের মধ্যে ছাত্রছাত্রীদের মাতিয়ে রাখে।

অনুষ্ঠানে সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন আয়োজক প্রকল্প পরিচালক রাশিক আদিত হায়দার, ডেপুটি ডিরেক্টর মোহাম্মদ নাজমুল ইসলাম, স্টেজ ম্যানেজার মোহাম্মদ সৈকত হোসেন, স্টেজ কো-অর্ডিনেটর লিমন খান, হেড অব সিকিউরিটি নুসরাত নাহার রেশমি, প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর মোহাম্মদ মহসিন প্রমুখ।

বাংলাদেশ স্টুডেন্ট নাইট সম্পর্কে মিনহাজুর রহমান এনটিভি অনলাইনকে বলেন, এটি বিএসএনের ষষ্ঠ আসর। বাংলাদেশি সংস্কৃতি বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীদের মধ্যে তুলে ধরতেই মূলত বিএসএনের এই প্রচেষ্টা।

LEAVE A REPLY