পূর্ব জেরুজালেম ফিলিস্তিনের রাজধানী হওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

0
36
পূর্ব জেরুজালেম ফিলিস্তিনের রাজধানী হওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী
পূর্ব জেরুজালেম ফিলিস্তিনের রাজধানী হওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতির যে ঘোষণা দিয়েছেন, তা বাংলাদেশের কাছেও গ্রহণযোগ্য নয় বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জেরুজালেমের বিষয়ে বাংলাদেশের অবস্থান স্পষ্ট করে তিনি বলেন, ১৯৬৭ সালের যুদ্ধের পর পূর্ব জেরুজালেমের ভূখণ্ডই ফিলিস্তিনের রাজধানী হওয়ার কথা ছিল। আমি মনে করি, এখনও তাদের সেটাই থাকা উচিত।

বৃহস্পতিবার বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমেরিকার রাষ্ট্রপতি সুয়োমোটো যে ঘোষণা দিয়েছেন, আমার কাছে মনে হয় এটা ইসলামিক ওয়ার্ল্ডে কারও কাছে গ্রহণযোগ্য না। কারণ এখানে জাতিসংঘের রেজুলেশন রয়েছে। রেজুলেশন অনুযায়ী কিন্তু পদক্ষেপ নেয়া উচিত।
তিনি বলেন, জাতিসংঘের রেজুলেশনকে এভাবে অগ্রাহ্য করা কিন্তু কেউ বোধ হয় মেনে নেবে না। এটা ফিলিস্তিনের বিষয়ে আমার বক্তব্য।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবাইকে মনে রাখতে হবে, ফিলিস্তিনের রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া দাবি নয়, তাদের অধিকার। সবার উচিত তাদের স্বীকৃতি দেয়া।

তিনি বলেন, এটা সবারই জানা ১৯৬৭ সালের যুদ্ধের পর পশ্চিম জেরুজালেমের ভূখণ্ডই ফিলিস্তিনের রাজধানী হওয়ার কথা ছিল। আমি মনে করি, এখনও তাদের সেটাই থাকা উচিত। এটি উল্টালে বিশ্বে অশান্তি সৃষ্টি হবে।

ট্রাম্পের ঘোষণার কারণে মধ্যপ্রাচ্যে সঙ্ঘাতের আশঙ্কা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এখানে এভাবে একতরফাভাবে করা মানে, অশান্তি সৃষ্টি করা এবং যে শান্তি প্রক্রিয়া, যেটা আমেরিকাই শুরু করেছিল, সেটার জন্য নোবেল প্রাইজও দেয়া হলো, আবার তারাই অশান্তির সৃষ্টি করল।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে মুসলিম বিশ্বকে ঐকবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, এখন মুসলিম বিশ্বের একটাই কাজ, ঐক্যবদ্ধ হয়ে ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেয়া। যাত ফিলিস্তিনি জনগণ যেন তার ন্যায্য অধিকার ফিরে পায়।

উল্লেখ্য, কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর সে দেশ সফর করেন। এ সফরের অভিজ্ঞতা তুলে ধরতে বৃহস্পতিবারের সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

LEAVE A REPLY