‘মেসির সঙ্গে খেলতে পারাটা স্বপ্নীল’

0
63
‘মেসির সঙ্গে খেলতে পারাটা স্বপ্নীল’
‘মেসির সঙ্গে খেলতে পারাটা স্বপ্নীল’

প্রথম কলম্বিয়ান হিসেবে বার্সেলোনায় নাম লিখিয়েছেন ইয়েরি মিনা। মাঠে নামতে তর সইছে না তার। বার্সার প্রাণভোমরার লিওনেল মেসির সঙ্গে খেলতে মুখিয়ে আছেন প্রতিভাবান এই ডিফেন্ডার। মিনার কথায়, মেসির সঙ্গে খেলতে পারাটা হবে তার জন্য স্পেশাল।

লিভারপুল থেকে ব্রাজিলিয়ান তারকা ফিলিপ্পে কুতিনহোকে ভাগিয়ে আনার পর ন্যু ক্যাম্পের নিউবয় এখন ২৩ বছর বয়সী মিনা। তার আগমনে মেসির স্বদেশী অভিজ্ঞ হাভিয়ের মাশ্চেরানোর বার্সা অধ্যায়ের ইতি টেনে চাইনিজ ফুটবলে পাড়ি জমানোর গুঞ্জনে বাড়তি হাওয়া লেগেছে।

ব্রাজিলের ক্লাব পালমেইরাস থেকে সেন্টারব্যাক মিনাকে সাড়ে পাঁচ বছরের চুক্তিতে নিশ্চিত করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। মেয়াদ শেষ হবে ২০২৩ সালের ৩০ জুন। ট্রান্সফার ফি ১১.৮ মিলিয়ন ইউরো। রিলিজ ক্লজ (ক্লাবের ইচ্ছার বিরুদ্ধে যেতে চাইলে এ পরিমাণ অর্থ পরিশোধ করতে হবে) ধরা হয়েছে ১০০ মিলিয়ন ইউরো।

বার্সার মতো ইউরোপের বড় ক্লাবে সাইন করে কোনো চাপ অনুভব করছেন না মিনা। বরং মেসির সঙ্গে দেখা করে কতটা রোমাঞ্চিত ছিলেন সেই কথাও প্রকাশ করেছেন। শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) বার্সার অনুশীলন দেখার সময় প্রথমবার সাক্ষাৎ হয় দু’জনের।

মেসির প্রশংসায় পঞ্চমুখ মিনা, ‘এটা আমার কাছে স্পেশাল (মেসির সঙ্গে খেলা)। আমার চোখে তিনি বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। তার সঙ্গে দেখা করে আমার প্রথম অনুভূতি তার নম্রতা। আমি বেঞ্চে বসে ছিলাম (শুক্রবার ট্রেনিংয়ের সময়) এবং তিনি লুইস সুয়ারেজকে সঙ্গে নিয়ে ট্রেনিং থেকে চলে আসেন, এটা সত্যিই স্পেশাল যখন তিনি আমাকে স্বাগত জানাতে এসেছেন, যা আমার চুল দাঁড় করিয়ে দিয়েছে।’

‘আমি সব সময়ই বার্সেলোনার একজন বড় ভক্ত। বরাবরই তাদের খেলার স্টাইল পছন্দ করি এবং খুবই আনন্দিত যে এখন আমি ওয়ার্ল্ডের সেরা খেলোয়াড়দের সঙ্গে তাদের হয়ে খেলবো।’-যোগ করেন মিনা।

ন্যু ক্যাম্পে শনিবার (১৩ জানুয়ারি) ৮,৫৫২ জন সাপোর্টারের সামনে মিনাকে উপস্থাপন করা হয়। কুতিনহোর প্রেজেন্টেশনের চেয়ে ১ হাজারেরও বেশি! মাশ্চেরানো ক্লাব ছাড়লেও সেন্টারব্যাকে শুরুর একাদশে জায়গা করে নিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে জেরার্ড পিকে, স্যামুয়েল উমতিতি ও থমাস ভারমাইলেনের সঙ্গে।

LEAVE A REPLY