নায়কের কথায় উড়ে এলেন নায়িকা

0
52
সেলিন বেরান ও ফেরদৌস।
সেলিন বেরান ও ফেরদৌস।

নায়ক ফেরদৌসের এক কথায় যুক্তরাজ্য থেকে উড়াল দিয়ে বাংলাদেশে চলে এলেন সেলিন বেরান। ‘যদি একটু সময় পেতাম’ নামের নতুন একটি ছবির মহরত ও গানের শুটিংয়ে অংশ নিতেই তাঁর উড়ে আসা। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকায় এসে পৌঁছান তিনি। রাতে রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে ছবির মহরতে উপস্থিত ছিলেন। মঞ্চে উপস্থিত অতিথিদের সামনে তাঁকে পরিচয় করিয়ে দেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস।

ফেরদৌস ও সেলিন বেরান গত বছরের অক্টোবরে ‘ইন পারসু অব লাভ-ভালোবাসার খোঁজে’ নামে একটি ছবির শুটিং শুরু করেছিলেন। কিছুদিন শুটিং হওয়ার পর ছবিটির কাজ বন্ধ হয়ে যায়। প্রথম ছবির শুটিং শেষ না হতেই আরেকটির কাজ শুরু করছেন ফেরদৌস ও যুক্তরাজ্যের সেলিন বেরান।

মহরত অনুষ্ঠান শেষে প্রথম আলোর সঙ্গে কথা বলেন সেলিন। জানালেন, তিনি এখন যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, সুইজারল্যান্ড ও চেক প্রজাতন্ত্রে নিয়মিত কাজ করছেন। স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা আর গানের ভিডিওতে বেশি কাজ করা হচ্ছে তাঁর। হলিউডের ছবিতেও নাকি টুকটাক কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে।

ফেরদৌস ও সেলিন বেরান অভিনীত এবারের ছবি ‘যদি একটু সময় পেতাম’-এর পরিচালক গোলাম ফারুক। তিনি এর আগে ‘ইন পারসু অব লাভ-ভালোবাসার খোঁজে’ ছবিটিরও পরিচালক ছিলেন। কিছুদিন শুটিংয়ের পর প্রযোজক-সংক্রান্ত জটিলতায় সে ছবিটির কাজ থেমে যায়। এরপর যুক্তরাজ্যপ্রবাসী বাঙালিদের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ফোর মোশন পিকচার্স ফেরদৌস ও সেলিনকে জুটি করে ‘যদি একটু সময় পেতাম’ ছবির কাজ শুরুর সিদ্ধান্ত নেন। এরই প্রক্রিয়া হিসেবে ঢাকায় ছবিটির মহরত অনুষ্ঠিত হয়।

ফেরদৌস ও সেলিনের নতুন এই ছবিটির কাজ এক দিনের জন্য কাল শনিবার এফডিসিতে করা হবে। গানের এই শুটিংয়ের পর ছবির বাকি কাজ আগামী মার্চ থেকে শুরু হবে যুক্তরাজ্যে। তেমনটাই বললেন ফেরদৌস।

ছবিটির কাজ করার কারণ প্রসঙ্গে সেলিন বলেন, ‘ফেরদৌস যখন আমাকে গল্পটা শোনায়, তখনই ভালো লাগে। মনে হয়েছে, এটা সাধারণ কোনো গল্প নয়। খুব মজার। তাই কাজটি করতে রাজি হই।’

সেলিনের সঙ্গে সামনাসামনি দেখা হওয়ার আগে ফেরদৌসের সঙ্গে তাঁর ফোনে কথা হয়। সেন্ট্রাল লন্ডনের একটি কফিশপে প্রথম দেখা হয় তাঁদের দুজনের। ফেরদৌস বলেন, ‘প্রথম দেখায় মনে হয়েছিল, খুবই রাফ অ্যান্ড টাফ মেয়ে, কিন্তু খুব প্রিটি। পরে যখন তাঁর কাজগুলো আমাকে দেখাল, তখন মনে হয়েছে, ওর মধ্যে সম্ভাবনা আছে। আমাদের ছবির জন্য যেমন একটি চরিত্রের দরকার, সেলিনের মধ্যে সব যোগ্যতা আছে। এরপর কথাবার্তা বলে চূড়ান্ত করি।’

‘যদি একটু সময় পেতাম’ প্রসঙ্গে ফেরদৌস বলেন, ‘নামের মধ্যেই কিন্তু একটা আক্ষেপ আছে। প্রবাসী এক প্রেমিক যুগলের জীবনের গল্প। ছোট ছোট সমস্যা ও মানবিকতার ব্যাপার তুলে ধরা হবে। অনেক চড়াই-উতরাই আছে। আপাতত এটুকুই…।’

‘যদি একটু সময় পেতাম’ ছবির কাহিনি, চিত্রনাট্য, সংলাপ ও পরিচালনায় গোলাম ফারুক। আগে কখনো সেলিন বেরানের বাংলাদেশে আসা হয়নি। মায়ের আদি নিবাস কলকাতায় হওয়াতে সেখানে হাতেগোনা কয়েকবার যাওয়া হয়েছে। ফেরদৌসের কথায় রাজি হয়ে তিনি বাংলাদেশে আসেন। বললেন, ‘ফেরদৌস খুবই চমৎকার মানুষ। ও এমনই একজন, যাকে বিশ্বাস করা যায়। ও যখন বলল, ছবিটির মহরতে ঢাকায় আসতে হবে, আমি বললাম ওকে। কাজের কোনো সীমানা নেই। কাজের জন্য মানুষ পুরো পৃথিবী ঘুরবে, এটাই স্বাভাবিক।’

LEAVE A REPLY