বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা সম্পদের তথ্যগোপন মামলার রুল শুনানি গ্রহণে বিব্রতবোধ করেছেন হাইকোর্ট।

 

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এর একজন বিচারপতি বুধবার এই মামলা শুনতে বিব্রতবোধ করেন।আদালত মামলাটি প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

 

আদালতে দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শেখ একেএম মনিরুজ্জামান কবির।

 

ঘোষিত আয়ের বাইরে ৪ কোটি ৮১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৬১ টাকার মালিক হওয়া ও সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে কাফরুল থানায় এ মামলা করে দুদক।

 

মামলায় তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান ও শাশুড়ি ইকবাল মান্দ বানুকে আসামি করা হয়।

 

পরে একই বছরে জোবাইদা রহমানের এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

 

পরে এর বিরুদ্ধে আপিল করলেও আপিল বিভাগ হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখেন। কিন্তু এ মামলায় আসামিপক্ষ দুদককে পক্ষভুক্ত করেনি।

 

পরে ২০১৫ সালের ২ এপ্রিল দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরীও বিচারপতি জেবিএম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই মামলায় দুদককে পক্ষভুক্ত করার আবেদন মঞ্জুর করেন।

LEAVE A REPLY