নিউইয়র্কে ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ

0
50
১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস
১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস

নিউইয়র্ক: আগামী ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের ৪৫তম মহান বিজয় দিবস। দীর্ঘ ৯ মাসের সশস্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে ১৯৭১ সালের এই বাংলাদেশ বিজয় অর্জন করে। বাঙালীর এই বিজয় গৌরবের, অহংকারের। দেশের ন্যায় প্রবাসের বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে নিউইয়র্ক তথা যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশী কমিউনিটি সহ বিভিন্ন সংগঠন ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। এসব কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে- আলোচনা সভা, শিশু-কিশোর-কিশোরীদের নানা প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রভৃতি।
বাংলাদেশ সোসাইটি: মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক প্রতি বছরের মতো এবছরও অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে। আগামী ১৬ ডিসেম্বর শুক্রবার সিটির উডসাইডস্থ কুইন্স প্যালেসে সন্ধ্যা ৬টায় আয়োজিত সোসাইটির অনুষ্ঠানমালার মধ্যে রয়েছে- মহান মুক্তিযুদ্ধের উপর আলোচনা, কবিতা আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন এম এ মালেক (বীর বিক্রম)। এছাড়া প্রবাসে বসবাসকারী মুক্তিযোদ্ধাগণ বিশেষ অতিথি থাকবেন। অনুষ্ঠানটি সফল করতে সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার সকল প্রবাসীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।
জালালাবাদ এসোসিয়েশন: মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা ইনক আগামী ১৮ ডিসেম্বর রোববার অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। সিটির এস্টোরিয়াস্থ জালালাবাদ কার্যালয়ে ঐদিন সন্ধ্যা ৪টায় আয়োজিত অনুষ্ঠানমালার মধ্যে থাকবে মহান মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক জেনারেল এম এ জি ওসমানীকে নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র প্রদর্শণ, আলোচনা সভা প্রভৃতি। চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছেন ভয়েস অব আমেরিকার (ভোয়া)-এর বাংলা বিভাগের সাবেক প্রধান ইকবাল বাহার চৌধুরী। অনুষ্ঠানটি সফল করতে নাজমুল হক মাহবুবকে আহ্বায়ক ও কয়সর রশীদকে সদস্য সচিব করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটি সফল করতে এসোসিয়েশনের সভাপতি বদরুল হোসেন খান ও সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চৌধুরী সকল প্রবাসী জালালাবাদবাসীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।
মুক্তিযোদ্ধা সংগঠন: মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা ফাউন্ডেশন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ যৌথভাবে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। ১৫ ডিসেম্বর বৃহস্প্রতিবার সন্ধ্যা ৫টায় জ্যাকসন হাইটস্থ জুইস সেন্টারে আয়োজিত অনুষ্ঠানমালার মধ্যে থাকবে অস্থায়ী স্মৃতিসৌধে শহীদদের স্মরণে ফুল দিয়ে সম্মান প্রদর্শণ, মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল শামীম আহসান। এছাড়া বিশেষ অতিথি থাকবেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী, মুক্তিযোদ্ধা যথাক্রমে রথীন্দ্র নাথ রায়, শহীদ হাসান ও কাদেরী কিবরীয়া।
বিপা: বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব পারফর্মিং আর্টন (বিপা)-এর সাফল্যের ২৪ বছর পালনের পাশাপাশি মহান বিজয় দিবস উদযাপন করবে ১৭ ডিসেম্বর শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় জ্যামাইকার পিএস ১৮২ মিলনায়তনে। ‘আমি গাইবো বিজয়েরই গান’ শীর্ষক অনুষ্ঠানমালার মধ্যে থাকবে সনদ ও ট্রফি বিতরণ, ছোটদের কবিতা ও গান, সঙ্গীতালেখ্য, নৃত্যানুষ্ঠান প্রভৃতি।
জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি: মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি ইনক, নিউইয়র্ক আগামী ১৮ ডিসেম্বর রোববার ‘বিজয় উল্লাস’ শীর্ষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে। ঐদিন সন্ধ্যা ৫টায় স্থানীয় হিলসাইড এভিনিউস্থ এক্সিট রিয়েলটি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিতব্য অনুষ্ঠানমালার মধ্যে থাকবে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাণনা প্রদান, আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান সফল করতে সৈয়দ আতিকুর রহমানকে আহ্বায়ক, শেখ হায়দার আলীকে প্রধান সমন্বয়কারী ও ইফজাল আহমেদ চৌধুরীকে সদস্য সচিব করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটি সফল করতে সংগঠনের সভাপতি মো: সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল আজাদ ভ্ইূয়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।
শিল্পকলা একাডেমী ইউএসএ: মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাণনা প্রদান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। আগামী ১৭ ডিসেম্বর শনিবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসস্থ পালকি পার্টি সেন্টারে অনুষ্ঠিতব্য বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল শামীম আহসান। অনুষ্ঠানটি সফল করতে সংগঠনের সভাপতি মনিকা রায় ও সাধারণ সম্পাদক নিখিল কুমার রায় সকল প্রবাসী বাংলাদেশীর সহযোগিতা কামনা করেছেন।
এএইচ-১৬ ড্রিম ফাউন্ডেশন: বিগত দুই বছরের মতো এবছরও মহান বিজয় দিবস উদযাপন করবে এএইচ (আহাম্মদ হোসেন)-১৬ ড্রিম ফাউন্ডেশন ইউএসএ ইনক। এ উপলক্ষ্যে চলতি ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে অথবা জানুয়ারী মাসের প্রথম সপ্তাহে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এবার বিভিন্ন ক্ষেত্রে কৃতিত্ব/অবদান রাখার জন্য প্রবাসের ১৬জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে সম্মাণনা প্রদান করা হবে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মো: আলী হোসেন জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY