‘ট্রাম্পের পারমাণবিক অস্ত্র বিষয়ক টুইট নিয়েই শুরু হতে পারে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ’

0
70
Donald-Tru
Donald-Tru

বিশেষজ্ঞরা উদ্বিগ্ন। তারা সতর্কতা দিচ্ছেন। বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত ডনাল্ড ট্রাম্প পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ে যে টুইট করেছেন তা প্ররোচণামুলক। এ থেকেই তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে। ট্রাম্প গত ২২শে ডিসেম্বর তা দেশের পারমাণবিক কর্মসূচি শক্তিশালী ও বিস্তৃত করার বিষয়ে টুইট করেন। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রকে অবশ্যই পারমাণবিক অস্ত্র বড় আকারে শক্তিশালী করতে হবে। এর সক্ষমতা বাড়াতে হবে। যাতে বিশ্ব যুক্তরাষ্ট্রের পারমাণবিক অস্ত্র দেখে সমীহ করে। কিন্তু মিডলবারি ইন্সটিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের পারমাণবিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ক বিশেষজ্ঞ জেফ্রে লুইস বলছেন, যদি ট্রাম্প গুরুত্ব দিয়ে বা বেপরোয়াভাবে ওই টুইট করে থাকেন তাহলে ভেবে নিন আমরা একটি সঙ্কটের মধ্যে আছি। মানুষ এমন টুইটকে সবচেয়ে খারাপ হিসেবে ভেবে নিতে পারে। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন দ্য এক্সপ্রেস। জেফ্রে আরও বলেছেন, কোনো যুদ্ধ শুরু হলে তাতে আগেভাগেই পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের পরিকল্পনা রয়েছে উত্তর কোরিয়ার। তারা এ বিষয়ে কোনো কালবিলম্ব করবে না। যদি উত্তর কোরিয়া দেখে যে আমরা যুুদ্ধে যাচ্ছি তাহলে তারা তাদের পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করবে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের বিরুদ্ধে। ওদিকে প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটির পারমাণবিক নীতি বিষয়ক বিশেষজ্ঞ ব্রুস ব্লেয়ার ওয়াশিংটন পোস্টের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেছেন। সেখানে তিনি যা বলেছেন তাকে একটি বড় যুদ্ধে বিশ্ব নেতাদের প্রস্তুতির জন্য সতর্কতা হিসেবে দেখা যেতে পারে। ব্রুস ব্লেয়ার বলেছেন, পারমাণবিক কূটনীতি টুইটারে নিয়ে গিয়েছেন ডনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্র পারমাণবিক খাতে এরই মধ্যে যে প্রভাব বিস্তার করে আছে তার ওই টুইটে এর অনেক বেশি ক্ষতি হতে পারে। ট্রাম্প যে নীতি নিয়েছেন তাতে তিনি হয়তো অস্ত্র প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিশ্বে তার যত শত্রু আছে তাদের বিরুদ্ধে শ্রেষ্ঠ হওয়া ও টেকসই অবস্থানে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করছেন। ওদিকে ট্রাম্পের অস্ত্র নিয়ে টুইট বা মন্তব্য কোনো ধরনের অস্ত্র প্রতিযোগিতা শুরু করবে বলে মনে করেন না তার মুখপাত্র সিন স্পাইসার। তিনি মনে করেন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত ট্রাম্প এটা নিশ্চিত করবেন যে, রাশিয়া ও চীনের মতো যেসব দেশ তাদের পারমাণবিক সক্ষমতা বাড়ানোর চেষ্টা করছে তারা পিছু ফিরে আসবে। স্পাইসার বলেছেন, তিনি (ট্রাম্প) এটা নিশ্চিত করবেন অন্য দেশগুলোকে একটি বার্তা দিতে। তাতে তিনি জানাবেন তিনি পশ্চাৎধাবন করবেন না।

LEAVE A REPLY