প্রাথমিক সমাপনীতে পাসের হার ৯৮.৫১ শতাংশ

0
43
PSC and JSC
PSC and JSC

২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় পাসের হার ৯৮ দশমিক ৫১ শতাংশ। আর ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় পাস করেছে ৯৫ দশমিক ৮৫ শতাংশ শিক্ষার্থী। এছাড়া জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় পাস করেছে ৯২ দশমিক ৮৯ শতাংশ ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষায় ৯৪ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ শিক্ষার্থী।
গতকাল প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী এবং জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার এ ফল প্রকাশ করা হয়। সকালে শিক্ষা বোর্ডগুলোর চেয়ারম্যানদের সঙ্গে নিয়ে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফলাফলের সারসংক্ষেপ হস্তান্তর করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।
এবার প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নেয় মোট ২৮ লাখ ৩০ হাজার ৭৩৪ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ২৭ লাখ ৮৮ হাজার ৪৩২ জন। পাসের হার বিবেচনায় এবার শীর্ষে রয়েছে বরিশাল বিভাগ। অন্যদিকে ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনীতে অংশ নেয় ২ লাখ ৫৭ হাজার ৫০০ পরীক্ষার্থী, যার মধ্যে পাস করেছে ২ লাখ ৪৬ হাজার ৮১৮ জন। এ পরীক্ষায় ফলাফলের দিক দিয়ে রাজশাহী বিভাগ শীর্ষে।
প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২ লাখ ৮১ হাজার ৮৯৮ জন। আর ইবতেদায়ি পরীক্ষায় এ সংখ্যা ৫ হাজার ৯৪৮।
এবার দেশের আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় অংশ নেয় মোট ২৩ লাখ ৪৬ হাজার ৯৫৯ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে জেএসসিতে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১৯ লাখ ৯৩ হাজার ৩১৬ ও ও জেডিসিতে ৩ লাখ ৫৩ হাজার ৬৪৩ জন।
ষষ্ঠবারের মতো অনুষ্ঠিত এ দুই পরীক্ষায় এবার পাস করেছে মোট ২১ লাখ ৮৩ হাজার ৯৭৫ জন। গতবারের তুলনায় এ বছর ৮৫ হাজার ৮৯৩ জন বেশি পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে। এ বছর জেএসসিতে পাস করেছে ১৮ লাখ ৫১ হাজার ৪৯৬ পরীক্ষার্থী। আর জেডিসিতে পাস করেছে ৩ লাখ ৪৩ হাজার ১৯০ জন পরীক্ষার্থী। এবার জেএসসি পরীক্ষায় বিদেশের আটটি কেন্দ্রে ৬২৬ জনের মধ্যে পাস করেছে ৬২৩ জন। পাসের হার ৯৯ দশমিক ৫২ শতাংশ, যা গত বছর ছিল ৯৮ দশমিক ২১ শতাংশ।
এবার জেএসসিতে জিপিএ ৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা গত বছরের তুলনায় ৪৭ হাজার ৫৫৭ জন বেড়েছে। এ বছর জিপিএ ৫ পেয়েছে ২ লাখ ৩৫ হাজার ৫৯ জন শিক্ষার্থী। গত বছর জেএসসিতে জিপিএ ৫ পেয়েছিল ১ লাখ ৮৭ হাজার ৫০২ জন। জেডিসিতে এবার জিপিএ ৫ পেয়েছে ১২ হাজার ৫২৯ জন, যা গত বছরের চেয়ে ৩ হাজার ৭৬৮ জন বেশি। গত বছর জেডিসিতে জিপিএ ৫ পেয়েছিল ৮ হাজার ৭৬১ জন শিক্ষার্থী।
২০১৬ সালে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় শতভাগ পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৯ হাজার ৪৫০। আর ২৮টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কোনো পরীক্ষার্থীই পাস করতে পারেনি। গত বছর জেএসসি ও জেডিসিতে ৮ হাজার ৫৮৩টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থী পাস করে। কোনো পরীক্ষার্থী পাস করতে পারেনি এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা গত বছর ছিল ৪৩।
এবার ঢাকা বোর্ডের ১ হাজার ১২৯টি প্রতিষ্ঠানের রাজশাহীর ১ হাজার ৫১৭, কুমিল্লার ৩৪৮, যশোরের ৯৯৯, চট্টগ্রামের ১৯২, বরিশালের ৯১৯, সিলেটের ২৪৪, দিনাজপুরের ৮৯৯ ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের ৩ হাজার ২০৩টি প্রতিষ্ঠানের সব পরীক্ষার্থী পাস করেছে। অন্যদিকে মাদ্রাসা বোর্ডের ২০টি, দিনাজপুর বোর্ডের ছয়টি এবং ঢাকা ও রাজশাহী বোর্ডের একটি করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কোনো পরীক্ষার্থী এবার পাস করতে পারেনি।
গতকাল সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, জেএসসি ও জেডিসিতে এবার ছাত্রের তুলনায় ১ লাখ ৫৩ হাজার ৯১৫ জন বেশি ছাত্রী অংশ নেয়। ছাত্রের তুলনায় ছাত্রী বেশি পাস করেছে শূন্য দশমিক ২৫ শতাংশ।
সংবাদ সম্মেলনে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমানসহ অন্যান্য বোর্ডের চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY