বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে। এতে স্থান পেয়েছেন তাসকিন আহমেদ। ইনজুরি কাটিয়ে অধিনায়ক হিসেবে দলে আছেন মুশফিকুর রহীম। আর রুবেল হোসেন ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টির পর টেস্ট দলেও ফিরে এসেছেন। পেসার শুভাশীষ রায়, কামরুল ইসলাম রাব্বি এবং উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহানও আছেন দলে। তবে  কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমানকে টেস্ট দলে রাখা হয়নি। ১২ জানুয়ারি ওয়েলিংটনে শুরু হবে প্রথম ম্যাচ। তাসকিনের যেখানে অভিষেকের প্রায় শতভাগ সম্ভাবনা।

বাংলাদেশের এই দলে মূলত ব্যাটসম্যান ৮ জন। এর মধ্যে উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান দুজন। সাকিব আল হাসানকে শুধু অল রাউন্ডার বলা যায়। যদিও ব্যাটের পাশে বল নিতে জানেন মাহমুদউল্লাহ, সৌম্য সরকাররা। ফাস্ট বোলার আছেন ৪ জন। মেহেদী হাসান মিরাজকে তো শুধু অফ স্পিনারই বলা হচ্ছে। আর তাইজুল ইসলাম  স্পিনার।

সৌম্যের টেস্ট দলেও থাকা বেশ বিস্ময়ের। তবে সবচেয়ে অনুমিত ছিল তাসকিনের থাকা। ২১ বছরের ফাস্টবোলার সম্ভবত প্রথম টেস্ট খেলতে যাচ্ছেন বিদেশের মাটিতেই। গেল সিরিজে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তাকে খেলানোর কথা উঠেছিল। কিন্তু কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে বিরুদ্ধে ছিলেন। তাসকিনের ফার্স্ট ক্লাস ক্যারিয়ারও বলার মতো কিছু না।  ১০টি ম্যাচে ২৪টি উইকেট। ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারির পর কোনো প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেননি।

এক সতীর্থের চোটের কারণে নিউজিল্যান্ড সফরে যেতে পেরেছেন রুবেল। তারপর দুই সংস্করণের ক্রিকেট খেলে আস্থা অর্জন করেছেন। প্রায় ২ বছর পর টেস্ট দলে রুবেল। ২০১৫ সালের শুরুর দিকে শেষবার টেস্ট খেলেছিলেন পাকিস্তানের বিপক্ষে। তার ২৩ টেস্টের ক্যারিয়ারে উইকেট মাত্র ৩২টি।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টেস্টের দল থেকে বাদ পড়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন ও শুভাগত হোম। প্রথম টেস্ট দলে ডাক পাওয়া শুভাশীষ রায় টিকে গেছেন। তবে এখনো টেস্ট অভিষেক হয়নি তার।

প্রথম টেস্টের বাংলাদেশ দল: মুশফিকুর রহীম (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, সাব্বির রহমান, মাহমুদউল্লাহ, সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, কামরুল ইসলাম রাব্বি, সৌম্য সরকার, তাসকিন আহমেদ, নুরুল হাসান, শুভাশীষ রায়।

LEAVE A REPLY