আগের দিনগুলোর ধারাবাহিকতায় সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের উর্ধ্বমূখী প্রবনতার মধ্যে দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। দিনভর সূচক উঠানামার মধ্যে দিয়ে দিনশেষে ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের কার্যদিবসের চেয়ে ৯ পয়েন্ট বেড়ে ৫৩৪২.৮৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

২০১৩ সালের ২৭ জানুয়ারি চালু হওয়া নতুন সূচকের সর্বোচ্চ অবস্থান ছিলো ৫ হাজার ৩৩৪.০৪ পয়েন্ট।যা হয়েছিলো ২০১৪ সালের ১২ অক্টোবরে।বৃহস্পতিবার সেই রেকর্ড অতিক্রম করেছে ডিএসইএক্স। এর ফলে ডিএসইতে টানা চার কার্যদিবস ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন হলো।
এদিন সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন ও বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম।

ডিএসইর তথ্য মতে, ৩২৭ টি কোম্পানির ৪৭ কোটি ৬ লাখ ৮৪ হাজার ৫৮০ টি শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের হাতবদল হয়েছে। মোট লেনদেনের পরিমাণ ১৪১৬ কোটি ৮৩ লাখ ৬৯ হাজার ৭০০ টাকা।
এদিন ডিএস-৩০ মূল্য সূচক ২.১৪ পয়েন্ট বেড়ে ১৯১০.৫১ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস শরীয়াহ্ সূচক ২.৮৪ পয়েন্ট কমে ১২৪৩.০১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৫০ টির, কমেছে ১৫৮ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯ টি কোম্পানির শেয়ার।
লেনদেনের ভিত্তিতে টাকার অংকে শীর্ষে থাকা ১০টি কোম্পানি হলো : বেক্সিমকো লিঃ, বারাকা পাওয়ার,লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স, ইফাদ অটোস, ওরিয়ন ফার্মা, ডেসকো লিঃ, কনফিডেন্স সিমেন্ট, অলিম্পিক এক্সেসরীজ, অ্যাপোলো ইস্পাত ও গ্রামীণ ফোন।

বৃদ্ধির শীর্ষে প্রধান ১০টি কোম্পানি :- সিএপিএম বিডিবিএল, বারাকা পাওয়ার, আইসিবি ৩য় এনআরবি, প্রগতি ইন্সুরেন্স, পপুলার ১ মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ১ম প্রাইম ফাইন্যান্স মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ১ম জনতা মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালি ব্যংক, পিপলস ইন্সুরেন্স ও আইসিবি ২য় এনআরবি।

অন্যদিকে দাম কমার শীর্ষে প্রধান ১০টি কোম্পানি :- বিডি অটোকারস, গোল্ডেন হারভেস্ট,মেঘনা কন্ডেন্সড মিল্ক, মাইডাস ফাইন্যান্স, রংপুর ফাউন্ড্রি, ডরিন পাওয়ার, সেন্ট্রাল ইন্সুরেন্স, প্রিমিয়ার লিজিং, ডেফোডিল কম্পিউটার ও শ্যামপুর সুগার।

LEAVE A REPLY