মহসিন খান , দাভোস , সুইজারল্যান্ড : ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) ৪৭তম বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাঁচ দিনের সরকারি সফরে সোমবার সকালে ডাভোস শহরে পৌঁছবেন। প্রধানমন্ত্রী এবার বাংলাদেশ বিমান নয় ইত্তেহাদে সুইজারল্যান্ড যাচ্ছেন।
সুইজারল্যান্ডের পূর্বাঞ্চলীয় আল্পস অঞ্চলে গ্রাউবান্ডেনে পাবর্ত্য রিসোর্ট ডাভোসে আগামী ১৭ থেকে ২০ জানুয়ারি হবে চার দিনব্যাপী এ সম্মেলন। এবারের সম্মেলনের প্রতিপাদ্য হচ্ছে— প্রতিবেদনশীল ও দায়িত্বশীল নেতৃত্ব।’
ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ) হলো—জেনেভার কলোগনিভিত্তিক সুইজারল্যান্ডের একটি অলাভজনক ফাউন্ডেশন। এটি আন্তর্জাতিক সংস্থা হিসেবে সুইস সরকার কর্তৃক স্বীকৃত। ডব্লিউইএফের উদ্দেশ্য—ব্যবসা, রাজনৈতিক, শিক্ষাগত এবং সমাজের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সূচকগুলোর অবস্থার উন্নতির মাধ্যমে বৈশ্বিক, আঞ্চলিক এবং শিল্পখাতের এজেন্ডাগুলো বাস্তবরূপ দেওয়া।
ডব্লিউইএফ প্রতিবছরের জানুয়ারিতে ডাভোসে বার্ষিক সভার জন্য পরিচিত। চার দিনের এই অনুষ্ঠানে প্রায় ৩ হাজার শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী নেতা, আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, মনোনীত বৃদ্ধিজীবী ও সাংবাদিক বিশ্বের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুগুলো নিয়ে আলোচনার জন্য একত্রিত হবেন।
ডব্লিউইএফ ৪৭তম বার্ষিক সভায় ২০১৭ সালে নেতৃত্বের জন্য পাঁচটি চ্যালেঞ্জের ওপর গুরুত্বারোপ করা হবে। এগুলো হলো—বৈশ্বিক সহযোগিতা শক্তিশালী করা, শেয়ারড আইডেন্টিটির ধারণা পুনর্বহাল, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি পুনর্জ্জীবিত করা, পুঁজিবাদের সংস্কার এবং চতুর্থ শিল্পবিপ্লব-এর প্রস্তুতি।
তিন হাজার অংশগ্রহণকারীর মধ্যে এক-তৃতীয়াংশ ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকার বাইরে থেকে আসবেন এবং ব্যবসায়ী ও সরকারের বাইরে এক-তৃতীয়াংশ অংশগ্রহণকারী উদ্যোক্তাদের প্রতিনিধিত্ব করবেন। এটি হবে ডাভোসে এ পর্যন্ত সবচেয়ে ব্যতিক্রম।
জি-২০ ভুক্ত সবগুলো দেশসহ ৭০টি দেশের সরকারি প্রতিনিধিদল ছাড়াও জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেসও অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।
এবারের সম্মেলন উদ্বোধন করবেন চীনের প্রেসিডেন্ট ঝি জিনপিন। ১৯৭৯ সালে প্রথম বার্ষিক সম্মেলনে যোগদানের পর এবারই চীনের সবচেয়ে বড় প্রতিনিধিদল অংশগ্রহণ করবে।
বৈঠকের কো-চেয়ারবৃন্দ, যারা বিভিন্ন আলোচনাসভা পরিচালনা করবেন এবং সম্মেলনের শুরুতে ও শেষে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখবেন, তারা হলেন—ডেনমার্কের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও ‘সেভ দ্য চিলড্রেন ইন্টারন্যাশনালের’ প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হেলে থরনিং ইসমিডট, ব্যাংক অব আমেরিকার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও চেয়ারম্যান ব্রায়ান ময়নিহান, অস্কারবিজয়ী তথ্যচিত্র নির্মাতা শারমিন ওবায়েদ-চিনয়, রয়াল ফিলিপস-এর প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফ্র্যান্স ভ্যান হউটেন।
এ উপলক্ষে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দশ গুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক এম , এ ,গনি এর নেতৃত্বে ইউরোপের বিভিন্ন দেশের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সুইজারল্যান্ড এ আসবেন। ইউরোপ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি বলেন , বরাবরের মত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে প্রবাসী বাংলীদের পক্ষ থেকে গণসংবর্ধনা প্রদান করা হবে। বাংলাদশ এর উন্নয়ন ও কল্যাণের অধীশ্বর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংবর্ধনা প্রদান এর সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। যদি সুইজারল্যান্ডের দাভোস শহরে অনেক ঠান্ডা এর পরে ইউরোপ আওয়ামী লীগের সব দেশের নেতৃবৃন্দ হাজির হবেন। এছাড়া ইউরোপ আওয়ামী লীগ এর যুগ্মসাধারণ সম্পাদক শামীম হক , নজরুল ইসলাম সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া জার্মান আওয়ামী লীগের এ কে এম বশিরুল আলম চৌধুরী সাবু , সাধারণ সম্পাদক শেখ বাদল আহমেদ ইতালি আওয়ামী লীগের সভাপতি ইদ্রিস ফরাজী ও সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল ,ফ্রান্স আওয়ামী লীগ এক পক্ষের সভাপতি মহসিন উদ্দিন খান লিটন ও সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার কয়েস , ফ্রান্স আওয়ামী লীগের একাংশের সভাপতি এম এ কাশেম ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবর রহমান , বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ এর সভাপতি শহিদুল হক ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরী রতন ,নরওয়ে আওয়ামী লীগ এর সভাপতি রুহুল আমিন ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান ,ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সভাপতি ইকবাল হোসেন মিঠু ও সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুৎ বড়ুয়া , সুইডেন আওয়ামী লীগ এর যুগ্ম-আহবায়ক মনজুরুল হক, শফিকুল ইসলাম লিটন , ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজুর রহমান , হেদায়েতুল ইসলাম শেলী ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগ এর সভাপতি আলী রমজান ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল ইসলাম , হল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন তপন ও সাধারণ সম্পাদক মুরাদ খান , স্পেন আওয়ামী লীগ এর সভাপতি শাকিল পান্না ও সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নয়ন দুলাল সাফা , রিজভী আলম , খোকন নূরে জামান ,পর্তুগাল আওয়ামী লীগের জহিরুল ইসলাম জসিম ও সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমান , গ্রীস আওয়ামী লীগের সভাপতি রাকিব মৃধা ও সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সহ আরো অনেকে ।

LEAVE A REPLY