বিশ্বের জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় পড়াশোনা করার ইচ্ছা সবারই থাকে। কিন্তু অর্থনৈতিক সক্ষমতা না থাকায় অনেকে সেগুলোয় পড়াশোনা করতে পারেন না। আবার অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়গুলো সম্পর্কে সঠিক তথ্য না জানার কারণেও ভর্তি জটিলতায় পড়েন কেউ কেউ। নিচে বিশ্বের কয়েকটি জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয় ও তাদের টিউশন ফি সম্পর্কে ধারণা দেয়া হলো

বিশ্বের জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় পড়াশোনা করার ইচ্ছা সবারই থাকে। কিন্তু অর্থনৈতিক সক্ষমতা না থাকায় অনেকে সেগুলোয় পড়াশোনা করতে পারেন না। আবার অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়গুলো সম্পর্কে সঠিক তথ্য না জানার কারণেও ভর্তি জটিলতায় পড়েন কেউ কেউ। নিচে বিশ্বের কয়েকটি জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয় ও তাদের টিউশন ফি সম্পর্কে ধারণা দেয়া হলো

ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি : ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের ক্যামব্রিজে অবস্থিত একটি বেসরকারি প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। এটি সাধারণত এমআইটি হিসেবে পরিচিত। সারা বিশ্বে বিশ্ববিদ্যালয়টি খুবই জনপ্রিয়। এমআইটিদের ছাত্র ও শিক্ষক সম্মিলিতভাবে ৭৮টি নোবেল পুরস্কার এবং ৫০টি ন্যাশনাল মেডেল অব সায়েন্স অর্জন করেছেন।
বিশ্ববিদ্যায়লটিতে পড়াশোনা করার জন্য খরচ হবে ৪৬ হাজার ৭০৪ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ৩৭ লাখ ৩৬ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে http://www.mit.edu/  ঠিকানায়।
হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় : হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রাচীনতম বিশ্ববিদ্যালয় এবং আইভি লীগের সদস্য। এটি ম্যাসাচুসেটসের বোস্টনে অবস্থিত। ১৬৩৬ সালে এ  বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। সারা বিশ্বের জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব এ  বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন। যেমনÑ বারাক ওবামা, বিল গেটসহ অনেক নোবেল বিজয়ী এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে টিউশন ফি হলো ৪৫ হাজার ২৭৮ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ৩৬ লাখ ২২ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে http://www.harvard.edu/ ঠিকানায়।
ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় : ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় ইংল্যান্ডের ক্যামব্রিজ শহরে অবস্থিত। এটি ইংরেজিভাষী বিশ্বের দ্বিতীয় প্রাচীনতম বিশ্ববিদ্যালয় (অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পরে) এবং বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে একটি। বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি ২৯ হাজার ৯২৭ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ২৩ লাখ ৯৪ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে http://www.cam.ac.uk/ ঠিকানায়।
অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় : অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ইংল্যান্ডের অক্সফোর্ড শহরে অবস্থিত। ইংরেজি ভাষাভাষী জগতের সবচেয়ে পুরাতন বিশ্ববিদ্যালয়। ধারণা করা হয়, ১১শ শতাব্দীর শেষদিকে বা ১২শ শতাব্দীর প্রথমে এ বিশ্ববিদ্যালয় যাত্রা শুরু করে। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমানে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অন্যতম হিসেবে সর্বস্বীকৃত। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে বহু বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব পড়াশোনা করেছেন। এ পর্যন্ত কমপক্ষে ৪ জন ইংরেজ রাজা, ৮ জন বিদেশি রাজা, ৪৭ জন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী, ২৫ জন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী, ২৮ জন বিদেশি প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী, ৭ জন সেইন্ট বা সাধু, ১৮ জন কার্ডিনাল ও একজন পোপ এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি ২৭ হাজার ৭৯৩ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ২২ লাখ ২৩ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে http://www.ox.ac.uk ঠিকানায়।
সুইস ফেডারেল ইনিস্টিটিউট অব টেকনোলোজি, সুইজারল্যান্ড : সুইস ফেডারেল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি ইউরোপের খুব জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়। সারা বিশ্বের হাজার হাজার ছাত্র প্রতি বছর বিশ্ববিদ্যালয়টিতে পড়াশোনা করতে যায়। বিজ্ঞান বিষয়ে গবেষণার জন্য সারা বিশ্বে এটি খুব জনপ্রিয়।
বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি ১ হাজার ৩২০ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ১ লাখ ৫ হাজার ৬০০ টাকা। ভর্তি সংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে যঃঃঢ়://িি.িবধধিম.পয/ ঠিকানায়।
টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়, কানাডা : টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয় কানাডার অন্টারিও প্রদেশের প্রাদেশিক রাজধানী টরন্টোতে অবস্থিত একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়। সারা বিশ্বে বিশ্ববিদ্যালয়টি খুবই জনপ্রিয়। এটির টিউশন ফি ৩১ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ২৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে http://www.eawag.ch/  ঠিকানায়।
রয়েল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, সুইডেন : সুইডেনের রয়েল ইনস্টিটউট অব টেকনোলজি খুবই জনপ্রিয় একটি বিশ্ববিদ্যালয়। ১৮২৭ সালে সুইডেনের প্রথম কারিগরি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে যাত্রা শুরু করে এটি। সারা বছর বিজ্ঞান বিষয়ে গবেষণার জন্য জনপ্রিয় এ বিশ্ববিদ্যালয়টি। বিদেশি ছাত্রদের বিশেষ সুবিধা দেয়ার কারণে অনেক বিদেশি ছাত্র বিশ্ববিদ্যালয়টিতে আগমন করেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ ফ্রি স্কলারশিপ প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। যারা স্কলারশিপ পান না তারা টিউশন ফি দিয়ে পড়াশোনা করতে পারেন। টিউশন ফি ২৩ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ১৮ লাখ ৪০ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে http://www.kth.se/en  ঠিকানায়।
লোমোনসভ মস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটি, রাশিয়া : লোমোনসভ স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় রাশিয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়। শুধু রাশিয়ায় নয়, সারা বিশ্ব থেকে হাজারও শিক্ষার্থী পড়াশোনা করতে আসে এখানে। আর বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফিও খুব একটা বেশি নয়। তাই একজন শিক্ষার্থী খুব সহজেই এখানে পড়াশোনা করতে পারেন। তবে রাশিয়ান ভাষা জানা শিক্ষার্থী ছাড়া সেখানে কাউকে ভর্তি নেয়া হয় না। বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি ৫ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ৪ লাখ টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে যঃঃঢ়://িি.িসংঁ.ৎঁ/ ঠিকানায়।
প্যারিস সরবোনি বিশ্ববিদ্যালয় : ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে অবস্থিত প্যারিস সরবোনি বিশ্ববিদ্যালয়। ১৯৭০ সালে বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়টি ফ্রান্সের জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে অন্যতম। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে টিউশন ফিও অনেক কম। বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি মাত্র ২৪০ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ১৯ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে http://www.paris-sorbonne.fr/    ঠিকানায়।
অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় : অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৪৬ সালে। বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি ২৭ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ২১ লাখ ৬০ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে  http://www.anu.edu.au/ ঠিকানায়।
মিউনিখ বিশ্ববিদ্যালয়, জার্মানি : মিউনিখ বিশ্ববিদ্যালয় জার্মানির একটি খুব প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়। এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৪৭২ সালে। বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি মাত্র ১২৪ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ৯ হাজার ৯২০ টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে https://www.en.uni-muenchen.de/index.html ঠিকানায়।
চার্লস বিশ্ববিদ্যালয়, চেক প্রজাতন্ত্র : চেক প্রজাতন্ত্রের রাজধানী প্রাগে অবস্থিত চার্লস বিশ্ববিদ্যালয়। এটিও খুব প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়। ১৩৪৮ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। সে সময় থেকে খুব ধারাবাহিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়টি তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।
বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি মাত্র ৩ হাজার ২০০ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ২ লাখ ৫৬ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে  http://www.cuni.cz/UKENG-1.html ঠিকানায়।
ইতালির বোলোগনা বিশ্ববিদ্যালয় : ইতালির বোলোগনা বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বের সবচেয়ে প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে মনে করা হয়। এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৮৯ সালে। সে সময়ের বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গের বেশিরভাগই এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র।
বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি মাত্র ১ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় প্রায় ৮০ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে  http://www.unibo.it/en  ঠিকানায়।
বার্সেলোনা বিশ্ববিদ্যালয়, স্পেন : বার্সেলোনা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৪৫০ সালে। সারা বিশ্ব থেকে প্রতিবছর হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়টিতে আগমন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি মাত্র ১ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ৮০ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে http://www.ub.edu/web/ub/en/index.html  ঠিকানায়।
ইউনিভার্সিটি অব কোপেনহেগেন, ডেনমার্ক : ডেনমার্কের কোপেনহেগেন বিশ্ববিদ্যালয় বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য ফুল ফ্রি স্কলারশিপের ব্যবস্থা রাখে। কিছু শর্ত পূরণ করতে পারলে বিনা খরচে সেখানে পড়তে পারবে বিদেশি শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি মাত্র ১ হাজার ৬২০ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ১ লাখ ২৯ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে  http://www.ku.dk/english    ঠিকানায়।
সিনহুয়া বিশ্ববিদ্যালয়, চীন : চীনের সিনহুয়া বিশ্ববিদ্যালয় খুব জনপ্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়। চীনে বিজ্ঞান ও গবেষণার জন্য এর আলাদা কদর আছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য ফুল ফ্রি স্কলারশিপের ব্যবস্থা রেখেছে। তাছাড়া নিজের খরচ বহন করেও পড়তে পারবে এটিতে।
বিশ্ববিদ্যালয়টির টিউশন ফি মাত্র ৪ হাজার ৬৯৫ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা প্রায় ৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। ভর্তিসংক্রান্ত সব তথ্য জানা যাবে ttp://www.tsinghua.edu.cn/ publish/newthu/index.html  ঠিকানায়।

LEAVE A REPLY